• ঢাকা
  • শনিবার, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
দীর্ঘ ৬ বছর পর এমপি নিক্সন চৌধুরীর সমর্থকদের আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে প্রথম বর্ধিত সভা অনুষ্টিত

ছবিতে দীর্ঘ ৬ বছর পর উপজেলা আওয়ামীলীগের অফিসে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কাজী হেদায়েতউল্লাহ সাকলাইন)



ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে দীর্ঘ ৬ বছর পর এমপি মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সনের সমর্থকদের প্রথম বর্ধিত সভা অনুষ্টিত হয়েছে।

শুক্রবার সকালে ভাঙ্গা পৌরসভা সংলগ্ন আওয়ামীলীগের কাযার্লয়ে ১২টি ইউনিয়ন ও পৌরসভা হতে আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, মহিলালীগ সহ অঙ্গসংগঠনের শত শত নেতা-কর্মী আওয়ামীলীগ অফিসে জড়ো হয়।

সকাল ১০ টায় উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কাজী হেদায়েতউল্লাহ সাকলাইন ও সাধারন সম্পাদক ফাইজুর রহমান নিক্সন চৌধুরী সমর্থকদের নিয়ে অফিসে প্রবেশ করেন।

বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রিয় কমিটির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন।

তিনি এসময় বলেন, হিংসার রাজনীতি ছেড়ে দেশ ও দশের উন্নয়নে রাজনীতি করুন। ফরিদপুর-৪ আসনের জনপ্রিয় সাংসদ মজিবুর রহমান চৌধুরী এখন শুধু তার সংসদীয় আসনের নেতা নয়।

তিনি সারা বাংলার আইডল। তিনি দলকে সুসংগঠিত করার জন্য দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্ত করতে তার নির্দেশে আমরা সব সময় কাজ করে যাব।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কাজী হেদায়েতউল্লাহ সাকলাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস,এম হাবিবুর রহমান, সরকারি কেএম কলেজের সাবেক জিএস ও যুবলীগ নেতা লাবলূ মুন্সি, পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর ওমর ফারুক হবি, বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন পর্যায় আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীগণ প্রমুখ।

উল্লেখ্য ২০১৪ সালে দশম জাতীয় সংসদ নিবার্চনে স্বতন্ত্র প্রাথর্ী মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন ফরিদপুর-৪ আসনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্ধী আওয়ামীলীগের প্রেসেডিয়াম সদস্য কাজী জাফরউল্লাহকে পরাজিত করেন।

সেই সময়ে ক্ষিপ্ত হয়ে আওয়ামীলীগ ও তার সহযোগী সংগঠনের একাধীক নেতা-কর্মী কথিক বহিস্কার করেন তিনি। পরবর্তীতে ২০১৯ সালের একাদশ জাতীয় নিবার্চনেও কাজী জাফরউল্লাকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে নিক্সন চৌধুরী হারিয়ে দেন।

সেই থেকে অদ্যবদী আওয়ামীলীগের কোন নেতা-কর্মী উপজেলা আওয়ামীলীগের কাযার্লয়ে প্রবেশ করেন নাই। সম্প্রতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সাংসদ মজিবুর রহমান চৌধুরীকে আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য করেন। এরপরই চাঙ্গা হয়ে যায় কথিত বহিস্কিত সকল নেতা-কর্মী। একই সাথে বহিস্কিত নেতা-কর্মীদের বহিস্কারাদেশ কেন্দ্র হতে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

শুক্রবার নতুন বছরের শুরুতেই নিক্সন চৌধুরী সমর্থক এসব নেতা-কর্মীরা বর্ধিত সভা করে দীর্ঘ ৬ বছর পর আবারও তাদের কাযার্লয়ে ফিরে আসে।

এবিষয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ফাইজুর রহমান তার বক্তব্যে বলেন, কাজী জাফরউল্লাহ পর পর দুইবার নিবার্চনে পরাজিত হয়ে আমাদেরকে সম্পুর্ন অবৈধ ভাবে বহিস্কার করার চেষ্টা করেন। কেন্দ্র তা প্রত্যাখান করায় আমরা স্বপদে বহাল থাকি। এতদিন ভাঙ্গা উপজেলায় আওয়ামীলীগ বিচ্ছিন্ন ভাবে ছিল আজ থেকে আমরা একত্রিত হয়ে দলকে সুসংগঠিত করব।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

ডিসেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« নভেম্বর  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।