• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৩রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জুন, ২০২১ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
ভেষজ ‘মাউথ ফ্রেশনারস’

ছবি সংগৃহিত

অস্বস্তিকর পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণ পেতে রয়েছে প্রাকৃতিক উপায়।

ধূমপান, শুষ্ক মুখ, মাঢ়ির রোগ এমনকি সাইনাসের সমস্যা থাকলে জিহবা অথবা দাঁতের মাঝখানে ব্যাকটেরিয়ার সৃষ্টি হয় যা নিঃশ্বাসের দূর্গন্ধ সৃষ্টি করে। ফলে পড়তে হয় নানা রকম অস্বস্থিকর পরিস্থিতিতে।

জীবনযাপন-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায় ভেষজ কিছু উপাদান সম্পর্কে যা নিঃশ্বাসের দূর্গন্ধ দূর করতে সাহায্য করে।

মৌরি:

এতে আছে অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল উপাদান যা মুখের অভ্যন্তরে ব্যাক্টেরিয়া দূর করতে সাহায্য করে ফলে মুখে দুর্গন্ধ হয় না। মুখ পরিষ্কার রাখতে এক চা-চামচ মৌরি চাবান অথবা এক কাপ গরম পানিতে দুই চা-চামচ মৌরি দিয়ে ‘মৌরি চা’ তৈরি করে দিনে কয়েকবার খান।

দারুচিনি:

দারুচিনিতে আছে সিনামিক অ্যাল্ডেহাইড, এটি একটি অত্যাবশ্যকীয় তেল যা মুখের ব্যাক্টেরিয়া সৃষ্টি বাধা দেয় ফলে দূর্গন্ধ সৃষ্টি হয় না। এক কাপ পানিতে এক চা-চামচ দারুচিনি গুঁড়া ফুটিয়ে নিয়ে তা দিয়ে মুখ কুলকুচি করে নিন। ভালো ফলাফলের জন্য প্রতিদিন সকালে এটি ব্যবহার করুন।

মেথি-গাছ:

নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ দূর করার জন্য মেথি গাছ বেশ কার্যকর। শ্লৈষ্মিক সংক্রমণ- ঠাণ্ডা, সাইনাস, ইনফ্লুয়েঞ্জা ইত্যাদি কারণে সৃষ্ট সংক্রমণের জন্য নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ হতে পারে। এক কাপ ফুটন্ত গরম পানিতে এক চা-চামচ মেথিবীজ দিয়ে ফোটান। নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ থেকে মুক্তি পেতে প্রতিদিন এই চা পান করুন।

লবঙ্গ:

এটা প্রাকৃতিক ফ্রেশনারের কাজ করে। এতে আছে অ্যান্টি-ব্যাক্টেরিয়াল উপাদান যা মুখের ব্যাকটেরিয়া নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। কয়েক টুকরা লবঙ্গ মুখে নিয়ে চাবান। এটি তাৎক্ষণিকভাবে নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর করতে সাহায্য করে।

লেবুর রস:

লেবুর অ্যাসিডিক উপাদান ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধিকে বাধা দেয়। এছাড়াও এর শক্তিশালী সুগন্ধ মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে সাহায্য করে। এক টেবিল-চামচ লেবুর রস এবং কিছু লবণ এক কাপ পানিতে মিশিয়ে নিয়ে তা দিয়ে কুলকুচি করুন। এতে করে নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর হয়ে যাবে।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

জুন ২০২১
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« মে  
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০