• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ ইং
ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে
দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানমের অবস্থা খুবই আশংকা জনক।  দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত হয়ে এখনো অচেতন অবস্থায় রয়েছেন। তার শরীরে আঘাত থাকায় বড় ধরনের অস্ত্রোপচার করা দরকার। এজন্য উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টার যোগে তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।
এর আগে বৃহস্পতিবার (৩ আগস্ট) রাত আড়াইটার দিকে নিজ সরকারি বাসভবনে হামলার শিকার হন ঘোড়াঘাট উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানম (৩৫)।
আবাসিক ভবনে ঢুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে দুর্বৃত্তরা। এ সময় তার পিতা অমর আলীকেও কুপিয়ে আহত করে তারা। বর্তমানে ইউএনও ওয়াহিদা খানম রংপুর ডক্টরস ক্লিনিকে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন। সেখান থেকে তাকে ঢাকায় আনা হচ্ছে। এদিকে তার পিতাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলার ঘটনায় উপজেলা পরিষদ চত্বর ঘিরে রেখেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।
দিনাজপুর-৬ আসনের সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক, দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম, পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন ঘটনা স্থলে উপস্থিত রয়েছেন।
 জানা গেছে, রাত আনুমানিক আড়াইটায় উপজেলা পরিষদের নির্বাহী অফিসারের আবাসিক ভবনে ঢুকে পড়ে একদল দুর্বৃত্ত। এ সময় ইউএনও ওয়াহিদা খানমকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে শুরু করে। এ সময় তার চিৎকারে সঙ্গে থাকা পিতা ছুটে এসে মেয়েকে বাঁচানোর চেষ্টা করলে দুর্বৃত্তরা তাকেও জখম করে। পরে অন্য কোয়াটারের বাসিন্দারা টের পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় পরে এ সময় তাদেরকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দ্রুত ঘোড়াঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাদেরকে রংপুরে প্রেরণ করা হয়। ইউএনও ওয়াহিদা খানমকে রংপুর ডক্টরস ক্লিনিকে আইসিইউতে ও রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ঘোড়াঘাট থানার ওসি আমিরুল ইসলাম জানান, ‘ঠিক কি কারণে ঘটনা ঘটেছে তা এখনও কিছুই জানা যায়নি। জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

নভেম্বর ২০২০
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« অক্টোবর  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।