• ঢাকা
  • রবিবার, ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩রা জুলাই, ২০২২ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
সাম্প্রতিক ভাবনা : কেন আত্মঘাতী হবেন?

ছবি প্রতিকী

ডেস্ক রিপোর্ট:- একাকীত্ব অনেক সময় অসহনীয় হয়ে উঠে। অধিক বয়সে ও রোগ ব্যাধিতে এই অবস্থা হতে পারে আরও মর্মান্তিক। আত্মঘাতী হয়ে উঠা অস্বাভাবিক না। মানব জীবনের এ-ও এক কঠিন অধ্যায়। এই প্রতিকূল অবস্থায় বেঁচে থাকাও জীবনের একটি অধ্যায়। এ জন্য প্রয়োজন শক্ত মানসিকতা।

এ ক্ষেত্রে নিকট জনদের সচেতনতা ও সহমর্মীতা অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ। অথচ অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় নিকট জনদের, এমনকি পুত্র – কন্যাদের আত্ম সুখে বিভোর থাকতে। যা অবহেলারই নামান্তর বা দায়িত্ব হীনতা। অত্যন্ত অমানবিক ও ঘৃণীত। আত্ম সুখে এই যে আত্ম কেন্দ্রিক আচ্ছন্ন ও মোহে আবিষ্ঠ হয়ে থাকা তার ফলে অন্য একটি জীবনকে অনেক সময় ঠেলে দেয় পতনের অন্ধকার গহ্বরে। এই বোধ অনেকের কাজ করে না।
এখানেই মূল সমস্যা। কি ভাবে কাজ করবে , আপনি তো মানুষ হয়েও মানুষ হয়ে উঠেন নি।আপনার নেই মানবিক বোধ,সামাজিক দায়িত্ব বোধ। আপনার মধ্যে নেই শিল্প বোধ। আপনার মধ্যে নেই ধর্ম বোধ।
এ অর্জন করতে হয় পরিবার, সমাজ ,শিল্প চর্চা, ধর্ম চর্চা থেকে। এ জন্য উন্নত সমাজ কাঠামোও চাই।
মানব জীবনের স্বাভাবিক পরিণতি এক সময় একা হয়ে যাওয়া। এক সময় বিবিধ রোগ ব্যাধি বাসা বাঁধবে দেহে ও মনে।
আপনার এ জন্য আগে থেকেই প্রস্তুতি নিতে হবে।কি ভাবে একাকীত্বের মধ্যেও বেঁচে থাকা যায় শেষ ক্ষণটির জন্য।
এ জন্য পূর্ব থেকে সংসার ধর্ম পালনের সাথে সুন্দর কিছু অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।
মানব জীবন মানে শুধু অর্থ, অট্টালিকা ও গাড়ি নয়।সংসার ধর্ম মানে বিবাহ ও সন্তান নয়।
প্রথমে সংসারের কথায় আসা যাক। প্রচুর অর্থ আয় করছেন। আপনার অনেক নাম ডাক। আপনি কি আপনার পারিবারিক জীবনকে শৈল্পিক রূপ দিতে আগ্রহী ছিলেন। আপনার সংসার জীবনকে কি পরিপাটি রূপ দেওয়ায় প্রয়াসী ছিলেন। আপনি জৈবিক মিলনে যে সন্তানের বাবা বা মা হলেন তা কি ক্ষণিকের আনন্দে। আপনার কি সু-সন্তান কামনার সাথে মিশে ছিল।
আপনি কি সু-পরিবেশে আপনার সন্তানকে লালন পালন করে ছিলেন। আপনি যে সমাজে বসবাস করেন তা কি অনুকূল ছিল? যদি সমাজ বৈরী হয়, আপনি সমাজ পরিবর্তনে সামান্য ভূমিকা পালন করেছন কি?
অনেক কথাই বলা যায়।
একাকীত্বে আপনি বই পড়তে পারেন। আপনার অভ্যেস নেই। আপনি ফুল বাগান বা সব্জি বাগান করতে পারেন। আপনার অভ্যেস নেই। আপনি গান শুনতে পারেন। আপনি গানও শোনেন না। সারা জীবন আপনি আপনার ধর্ম গ্রন্থ টি পড়ে দেখেন নি।এই সময় অর্থাৎ অধিক বয়সে আপনি অর্থ চিন্তা মাথা থেকে সরিয়ে ধর্ম গ্রন্থ পড়তে পারেন । যে কোনো সময় ডাক তো এসে যাবে। আপনি কেন আত্মঘাতী হবেন?
আপনি যত দিন বেঁচে থাকবেন, এই সুন্দর পৃথিবী দেখবেন। নব নব আবিষ্কার ও উদ্ভাবনের কথা জানবেন। আপনি তো অমৃতের সন্তান। কেন আত্মঘাতী হবেন? কেন গরল পান করবেন। প্রতিকূল অবস্থায় বেঁচে থাকাই তো মানব জীবন, জীবন মানেই যুদ্ধ।

## প্রফেসর আ ন ম আব্দুস সোবহান( কবি,গল্পকার ও গবেষক)এর ফেইসবুক থেকে সংগৃহিত।।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

জুলাই ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« জুন  
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।