• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯শে নভেম্বর, ২০২২ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
দশ বছরের সফলতা ও ব্যর্থতার ফিরিস্তি দিলেন ফরিদপুরের পৌর মেয়র মেথু

হারুন আনসারী, ফরিদপুর:

সদ্য সমাপ্ত ফরিদপুর পৌরসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করতে না পারাকে জীবনের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা বলে মন্তব্য করেছেন সদ্য বিদায়ী মেয়র শেখ মাহতাব আলী মেথু। তিনি বলেছেন, ‘পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেও প্রতিদ্বন্দ্বীতা করতে পারিনি এবং মেয়রের দ্বায়িত্ব পালনকালে অনেক কাজ শুরু করার পরেও সমাপ্ত করে যেতে পারিনি এটিই আমার মেয়র জীবনের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা।’
র্দীঘ দশ বছর মেয়র থাকার পর নিজের সাফল্য ও ব্যর্থতা প্রসঙ্গে গত মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারী) রাতে পৌরসভার হলরুমে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে শেখ মাহতাব আলী মেথু একথা বলেন। তিনি বলেন, দ্বায়িত্ব গ্রহণকালে বকেয়া বিদ্যুৎ বিলসহ নানা প্রতিবন্ধকতা নিয়ে কাজ শুরু করেছিলাম। আজ এই বিদায়কালে ফরিদপুর পৌরসভার কোন দেনা নেই, এটিই আমার সবচেয়ে বড় সফলতা।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বিবরণীতে তিনি দ্বায়িত্বকালে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের ফিরিস্তি উল্লেখ মেথু জানান, এই সময়কালে প্রায় ২৭০ কোটি টাকার উনśয়ন কাজ সম্পাদন করা হয়েছে। যার মধ্যে ১৯০ কি.মি. পাকা রাস্তা নির্মাণ, ৭০ কি.মি. পাকা ড্রেন নির্মাণ, ৯০ কি.মি. পাইপ লাইন স্থাপন, ৯ হাজার ৮৩৮টি সড়ক বাতি স্থাপন, ৩৫৮টি সোলার লাইটের মাধ্যমে সড়কবাতি ব্যবস্থাপনার উন্নয়ন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জমি অধিগ্রহণ, পয়োঃবজ্র প্লান্ট নির্মাণ, পৌর ভবন নির্মাণ, নতুন বাস টার্মিনাল নির্মাণ, দুটি পানির প্লান্ট স্থাপনসহ নানা উনśয়ন কাজ রয়েছে।
পৌরসভা হতে সিটি কর্পোরেশনে উন্নীত করার লক্ষ্যে ফরিদপুর পৌরসভার সীমানা বাড়িয়ে ৯টি ওয়ার্ড হতে ২৭টি ওয়ার্ডে উন্নীত করা হয়েছে। আর এই বর্দ্ধিত সীমানার সাথে ফরিদপুর পৌরবাসীর পৌরকর ও ট্রেড লাইসেন্স ফি বহু গুণ বেড়ে গেছে। প্রতিষ্ঠান চালানোর স্বার্থে এই ট্যাক্স ও ট্রেড লাইসেন্স ফি বাড়ানো হয়েছে দাবি করে মেথু বলেন, হোল্ডিং ট্যাক্স নিয়ে এপর্যন্ত ৯ হাজার শুনানী করেছি কেউ অসম্মানিতবোধ করেননি। অনেক বহুতল ভবন নির্মাণে পার্কিং প্লেস রাখা হয়নি আইনী বাধ্যবাধকতা না থাকায়। আর গুড়বাজার, চকবাজার, জুবিলি ট্যাĽ, পানির ট্যাĽ, হালিমা গার্লস স্কুল, লালদিঘী ও হেলিপোট বাজারের পাশে পৌর পুকুরগুলোর এখনও আগের মতোই রেখে যেতে পেরেছি বলেও তিনি দাবি করেন।
ফরিদপুর পৌরসভায় আগামীতে বজ্র থেকে তেল ও গ্যাস উৎপাদন, সলিড ওয়েস্ট ট্রিটমেন্ট প্লান্ট, আধুনিক পশু জবাইখানা, বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল, কেন্দ্রীয় মসজিদ নির্মাণসহ আরো অনেক উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে। নতুন পরিষদ এসকল অসমাপ্ত কাজ বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্টদেরদের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রেখে কাজ চালিয়ে যাবেন বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।
১৯৮৯ সালে ওয়ার্ড কমিশনার হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর প্রথমে প্যানেল মেয়র ও পরে ২০১১ সালে প্রথমবারের মতো মেয়র হন মাহতাব আলী মেথু। সবশেষ অনুষ্ঠিত পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র দাখিলের পর প্রতিক পেয়েও তিনি আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাড়ান।
দশ বছর মেয়র থাকাকালে শহরের সড়কবাতি ব্যবস্থাপনার উন্নয়ন করে তিনি ব্যাপক সমাদৃত হন। তবে পৌরকর বৃদ্ধি ও বকেয়া কর আদায়ে বাড়িতে বাড়িতে নোটিশ টাঙিয়ে ও লাল বাহিনী পাঠিয়ে তিনি ক্ষোভের মুখে পরেন। শহরের ব্যস্ততম মহল্লায় সড়কের পাশে বানিজ্যিক মার্কেট নির্মাণ এবং বিভিন্ন পুকুরপাড় ও ফুটপাতে বেদখল হয়ে যায়। দ্বায়িত্ব পালনের শেষ বিকেলেও মেয়র মেথু জুবিলি ট্যাংকের পাড়ের কিছু অবৈধ দখলদারকে উচ্ছেদ করেছেন বলে জানান।
সংবাদ সম্মেলনে ফরিদপুর পৌরসভার প্রধান নির্বাহী মো. শাহজাহান, নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সামসুল আলম, পৌর কাউন্সিরর নাসিরুদ্দিন মিলার ও আব্দুল মান্নান মানা, ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান খোকন, ফরিদপুর নাগরিক মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক পান্না বালা সহ প্রিন্ট ও টিভি মিডিয়ার স্থানীয় সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।
ফরিদপুর পৌরসভার সর্বশেষ সাধারণ নির্বাচনে গত ১০ ডিসেম্বর মেয়র নির্বাচিত হন সদর উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান অমিতাভ বোস। মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারী) ঢাকায় নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের শপথগ্রহণ সম্পন্ন হয়। আজ বুধবার বেলা ১১টার দিকে পৌরসভায় এলেও মেয়রের কক্ষে যাননি অমিতাভ বোস। আগামী রোববার তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে দ্বায়িত্বভার গ্রহণ করবেন বলে জানা গেছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

নভেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« অক্টোবর  
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।