• ঢাকা
  • শনিবার, ৩রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে মসজিদে গিয়ে জামাতে নামাজ পড়া থেকে বিরত থাকতে ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে

মুসুল্লিদের বাসায় নামাজ পড়ার তাগিদ

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে শুধু মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন, খাদেমরা মসজিদে নামাজ আদায় করবেন

সারাদেশের সব মুসুল্লিদের ঘরে নামাজ পড়ার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে মসজিদে গিয়ে জামাতে নামাজ পড়া থেকে বিরত থাকতে ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে এ বিষয়ে একটি জরুরি বিজ্ঞপ্তিও জারি করে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে শুধু মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন, খাদেমরা মসজিদে নামাজ আদায় করবেন। একই নির্দেশনায় অন্য ধর্মাবলম্বীদের উপাসনালয়ে সমবেত না হয়ে নিজ নিজ বাসস্থানে উপাসনা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সাখাওয়াৎ হোসেন সই করা বিজ্ঞপ্তি অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের কথাও বলা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জুমার জামাতে অংশগ্রহণের পরিবর্তে বাসায় জোহরের নামাজ আদায়ের নির্দেশ দেওয়া হয়। শুধু খতিব, ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খাদেমরা ছাড়া আর বাইরের আর কোনো মুসুল্লিকে মসজিদে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। প্রতিদিন পাঁচ ওয়াক্তের নামাজ অনধিক পাঁচজন এবং জুমার জামাতে অনধিক ১০ জন শরিক হতে পারবেন। এর বেশি কেউ জামাতে যেতে পারবেন না।

এই বিষয়ে ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ প্রথম আলোকে বলেন, করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঠেকাতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সবাই কঠোরভাবে এই নির্দেশনা মানবেন বলে তিনি মনে করেন। অন্যথায় শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে।

এ সময় সারা দেশে কোথাও ওয়াজ মাহফিল, তাফসির মাহফিল, তাবলিগ তালিম বা মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা যাবে না বলেও নির্দেশ দেওয়া হয়। সবাই ব্যক্তিগতভাবে তিলওয়াত, জিকির, ও দোয়ার মাধ্যমে মহান আল্লাহর রহমত ও বিপদ মুক্তির প্রার্থনা করবেন। অন্যান্য ধর্মের অনুসারীরাও এ সময় কোনো ধর্মীয় বা সামাজিক আচার–অনুষ্ঠানের জন্য সমবেত হতে পারবেন না।

এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ার বিষয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয় বলছে, করোনাভাইরাস বিশ্বব্যাপী ভয়াবহ মহামারি আকার ধারণ করেছে। এ অবস্থায় বাংলাদেশে যথাযথ সুরক্ষা নিশ্চিত করা না গেলে ব্যাপক সংক্রমণ এবং বিপুল প্রাণহানির আশঙ্কা করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

এ বিষয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয় বিভিন্ন দেশের উদাহরণ উল্লেখ করে জানায়, বিভিন্ন দেশে মসজিদ, মন্দির, গির্জা, প্যাগোডাসহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান থেকে করোনাভাইরাসের বিস্তার ঘটেছে। পার্শ্ববর্তী দেশগুলোতেও এ ধরনের বিস্তার ও প্রাণহানির ঘটনার উদাহরণ আছে। পবিত্র মক্কা, মদিনাসহ বিশ্বের প্রায় সব দেশের মসজিদে মুসল্লিদের আগমন সাময়িক বন্ধ রাখা হয়েছে। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণ না হওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশে মসজিদ, মন্দির, গির্জা প্যাগোডাসহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে সর্বসাধারণের আগমন বন্ধ রাখার পরামর্শ দিয়েছেন।

গত ২৯ মার্চ ইসলামিক ফাউন্ডেশন এবং শীর্ষস্থানীয় আলেমরা মসজিদে মুসল্লি কম রাখার আহ্বান জানিয়েছিল। পরিস্থিতি এখন দ্রুত ভয়ংকর অবনতির দিকে যাচ্ছে।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সর্বশেষ তথ্যমতে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫ জন। একদিনে মারা গেছেন ৩ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেন, করোনা দ্রুত সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ছে। আমাদের সবাইকে আরও সতর্ক হতে হবে।

সংবাদসুত্রঃসময়ের আলো

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

সেপ্টেম্বর ২০২১
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« আগষ্ট  
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০