• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
করোনায় গ্যাস্ট্রিকের ওষুধে সুস্থতার হার বেশি!

ছবি-প্রতিকী

যে সব রোগী গ্যাস্ট্রিকের ওষুধ খেতেন তারা করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থতার হার বেশি লক্ষ্য করা গেছে। গত শুক্রবার একটি ওয়েবসাইটে পোস্ট করা এক গবেষণা প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, ফেমোটিডিন গ্রহণ করা যে সব রোগী কভিড-১৯ এ হাসপাতালে ভর্তি হন, তাদের মধ্যে সুস্থতার হার দ্বিগুণের বেশি। তবে এটি এখনও পুরোপুরি স্পষ্ট নয় যে, এটি গ্যাস্ট্রিকের ওষুধের কাজ না অন্যকোন কারণে।

গবেষণা প্রতিবেদনটির সহরচয়িতা এবং নর্থওয়েল হেলথ এর চিকিৎসক ডা. জোসেফ কনিগলিয়ারো বলেন, ‘এ গবেষণা থেকে আমরা যা পেয়েছি তা উৎসাহব্যঞ্জক।’ প্রায় ৪০ বছর ধরে বাজারে আছে ফেমোটিডিন। গ্যাস্ট্রিক বা বুক জ্বালাপোড়ার একটি সাধারণ ওষুধ হিসেবে এটি কার্যকর। গ্যাস্ট্রিকের সমস্যার জন্য ডাক্তারের সাজেশান ছাড়াই মানুষ এটি খেয়ে থাকে।
এ গবেষণায় দেখা যায়, ১ হাজার ৫৩৬ জন রোগী যারা ফেমোটিডিন নিতেন না। তাদের মধ্যে ৩৩২ জন বা ২২ শতাংশ হয় মারা গেছেন বা ভেন্টিলেটরে রাখতে হয়েছে। অন্যদিকে ফেমোটিডিন গ্রহণ করতেন এমন ৮৪ রোগীর মধ্যে ৮ জন বা ১০ শতাংশ মারা গেছেন বা ভেন্টিলেটরে রাখতে হয়েছে।

কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটি আরভিং মেডিক্যাল সেন্টারের দুই গবেষক বিবৃতিতে বলেন, যারা ফেমোটিডিন গ্রহণ করতেন অন্য রোগীদের চেয়ে তাদের মৃত্যু ঝুঁকি দ্বিগুণ কম ছিল। তবে আমরা এটি এখনও নিশ্চিতভাবে বলতে পারছি না। কারণ এটি যুগপৎ কোন ঘটনাও হতে পারে। তারা ফেমোটিডেনের কারণে দ্রুত সুস্থ হয়েছেন না অন্য কোন কারণে। তবে এই তথ্যের ওপর ভিত্তি করে কাউকে ফেমোটিডিন নিতে নিষেধ করেছেন ডাক্তাররা। তাদের বক্তব্য এর জন্য আরো পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও তথ্য উপাত্ত দরকার।
সূত্র: সিএনএন, কালের কন্ঠ

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

ফেব্রুয়ারি ২০২৩
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« জানুয়ারি  
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।