• ঢাকা
  • শনিবার, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
ফরিদপুর জেলা আইনজীবি সমিতির মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা

নিরঞ্জন মিত্র (নিরু) : ( ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি)

ফরিদপুরের ঐতিহ্যবাহী জেলা জজ আদালতের যুগ্ন জেলা জজ ও সিনিয়র ম্যাজিস্ট্রেট আদালত সহ বেশ কয়েকটি আদালত ভাঙ্গা উপজেলায় স্থানান্তর করায় জেলা আইনজীবি সমিতির মানববন্ধন ও জরুরী এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি এ.ও.এন. খালেদ এর সভাপতিত্বে বুধবার দুপুরে আইনজীবী ভবনের নিচ তলায় এক সাধারন প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন ফরিদপুর জেলা আওয়মীলীগের সভাপতি এ্যডভোকেট সুবল চন্দ্র সাহা, সাজাহান মিয়া, শফিউল আলম, সৈয়দ মোদারেজ আলী (ইছা), শহিদুল নবী, সাবেক সভাপতি এ্যডভোকেট বাবু মোল্লা, বিশ্বজিৎ গাঙ্গুলি, মানিক মজুমদার, জেলা জজ কোর্টের পিপি দুলাল চন্দ্র সরকার, নারী ও শিশু ট্রাইবুনালের পিপি এ্যডভোকেট স্বপন পাল, সাধারন সম্পাদক এ্যডভোকেট গোলজার হোসেন মৃধা, কায়ছার শরীফ, কুব্বাদ, নুরআলম, হাবিবুর রহমান, জাহিদ ব্যাপারী, বদিউজ্জামান বাবুল, সিরাজ, সাধারন সম্পাদক হাবিবুর রহমান, স্বপন আচার্য, সাবেক সভাপতি এ্যডভোকেট কামাল উদ্দিন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন ফরিদপুরের ঐতিহ্যবাহী জেলা জজ আদালত বিটিশ সরকার হতেই পরিচালিত হয়ে আসছে। এই আদালতকে কিছু সংখ্যক কুচক্রি মহল ষড়যন্ত্র করে যুগ্ন জেলা জজ ও সিনিয়র ম্যাজিস্ট্রেট আদতালতসহ বেশ কয়েকটি আদালত স্থানন্তর এর জন্য প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। কিন্তু বিটিশ সরকার হতে পরিচালিত এই আদালত জেলা থেকে কিভাবে একটি উপজেলায় স্থানন্তরিত হয় তা আমাদের বোধগম্য নয়। ২০০ বছর এর পুরাতন স্মৃতিটাকে স্থানান্তর করা মানে ফরিদপুর জেলা তথা বৃহত্তর ফরিদপুরকে ধংসের মুখে ঠেলে দেওয়া। এতে সাধারন জনগন যেমন ভোগান্তির মুখে পরবে, তেমনি ন্যর্য বিচার নিয়েও প্রশ্নের সম্মুখিন হতে হবে। এ ছাড়াও ভাঙ্গা উপজেলায় এই আদালত স্থানানন্তর করার বিষয়ে আমরা কেউ অবগত নই। তাছাড়া এই বৃদ্ধ বয়সে আমরা কেউ উপজেলায় গিয়ে কাজ করতে আগ্রহী নই। কিছু সংখ্যক কুচক্রি মহল ইতিহাস বিকৃতি করে ভাঙ্গা উপজেলায় নেওয়ার চেষ্টা করছে। তাই আমরা এই ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াবো। এ ছাড়াও ন্যায় বিচার পেতে সাধারন জনগনও ফরিদপুর জেলাকে এড়িয়ে একটি উপজেলায় যেতে চায় না।

সভ শেষে উক্ত প্রতিবাদকারী আইনজীবী সমিতির কার্যালয় হতে একটি প্রতিবাদ মিছিল নিয়ে শহরের বিভিন্ন গুরুত্ব পুর্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মনবন্ধনে অংশ গ্রহন করে তারা। এ সময় তারা বলেন ফরিদপুর তথা বৃহত্তর ফরিদপুরের ঐতিহ্য ধরে রাখতে উক্ত হেয়ালীপনা প্রজ্ঞাপন বাদ দেওয়া পুর্বক বিচার প্রক্রিয়ার কাজে সব ধরনের ষড়যন্ত্র বন্ধ করতে হবে। তা না হলে আমাদের আন্দলন আরো কঠোর ভাবে পালিত হবে। প্রয়োজনে বিচার প্রক্রিয়ার কাজ বন্ধ করে সাধারন জনগনদের সাথে করে প্রতিবাদ মিছিল নিয়ে রাস্তায় নামার ও কঠোর হুশিয়ারি দেন উপস্থিত আইনজীবীরা। পরে ফরিদপুর জেলার আইনজীবীরা মৌখিক ভাবে জেলা প্রশাসক অতুল সরকারকে অবহিত করেন, পর্যায় ক্রমে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট লিখিত ভাবে বিষয়টি জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে অবহিত করবেন বলে তারা জানিয়েছেন। এ সময় জিপি, পিপি, এপিপি, সহকারী আইনজীবীসহ সিনিয়র ও জুনিয়র আইনজীবীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

ডিসেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« নভেম্বর  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।