• ঢাকা
  • সোমবার, ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জুন, ২০২১ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
ফরিদপুর কানাইপুরে খাদ্য ও ঈদ বস্ত্র বিতরণ করলেন প্রকৌশলী রুবেল আহমেদ

মানিক কুমার দাস,ফরিদপুর

ফরিদপুর সদর উপজেলার কানাইপুর ইউনিয়ন ও কৈজুরি ইউনিয়নের সাতটি গ্রামে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ বস্ত্র নিয়ে হাজির হলেন তরুণ সমাজ সেবক, প্রকৌশলী রুবেল আহমেদ ও তার স্বেচ্ছাসেবক বৃন্দ  ।

করোনাভাইরাসে যখন কাঁপছে সারাবিশ্ব, বাংলাদেশের মানুষও ভাইরাসের কারণে এখন আতঙ্কিত । দিনমজুররা পড়েছেন মহাবিপদে, অনেকে কর্ম হারিয়ে বেকার হয়ে গেছে, অনেকের ঘরের খাবার নেই । এমন দুর্দিনে সেই সব দুস্থ মানুষদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে সরকার। বেসরকারি ও ব্যক্তি উদ্যোগেও সহায়তা কার্যক্রম চলছে। এগিয়ে এসেছেন প্রকৌশলী রুবেল আহমেদ।

এবার অসচ্ছল মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন নিজের পরিচয় গোপন রেখে কানাইপুর ইউনিয়ন ৫টি গ্রাম ফুরসা, জটারকান্দি, শোলাকুন্ডু,হলুদবাড়িয়া ছাইবাড়িয়া ও কৈজুরি ইউনিয়নের ২টি গ্রাম কুজুরদিয়া ও গোঁড়াদাহ গ্রাামে । চলমান করোনায় অসহায় ও দরিদ্র মানুষের পাশে খাদ্য ও ঈদ বস্ত্র উপহার নিয়ে হাজির হয়েছেন রুবেল। আর তা করছেন নিজের পরিচয় গোপন রেখে।

বাড়ি বাড়ি গিয়ে পৌঁছে দিয়েছেন ২০০ জনের খাদ্য সামগ্রী ও ১০০ জনের মাঝে ঈদ বস্ত্র শাড়ি, লুংগি তার সেচ্ছাসেবী বাহিনী ।

এ প্রসঙ্গে রুবেল আহমেদ বলেন, ‘এখানে আসলে পরিচয়টা মুখ্য নয়। আমরা এ সময়ে গরিব মানুষের জন্য কিছু খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ বস্ত্র আমার লোকের মাধ্যমে উপহার হিসেবে তুলে দিয়েছি । আমরা অসহায় দরিদ্র মানুষকে টার্গেট করে সেই সব মানুষের বাড়ি হাজির হচ্ছি। সামনে পবিত্র ঈদে এসব খাদ্য সামগ্রী ও বস্ত্র পেলে কিছু না কিছু উপকার হবে।

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের সবার উচিত এই সময় মানুষের জন্য কাজ করা। আমি যে এলাকায় খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ বস্ত্র সহায়তা দিয়েছি সেখানকার মানুষরা খুবই গরিব। এমন মানুষদের পাশে দাঁড়ানো দরকার।স্থানীয় স্কুল শিক্ষক হাসান আহমেদ জানান, রুবেল খুব মানবিক ছেলে । ও ঈদ সামনে রেখে গ্রামের অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ বস্ত্র বিতরণ করেছেন। গত বছর করোনাকালীন প্রাদুর্ভাবের সময় অসহায় ও দুস্থ গ্রামবাসীর মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছিল। আমরা রুবেলের জীবনের সাফল্য কামনা করছি।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

জুন ২০২১
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« মে  
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০