• ঢাকা
  • বুধবার, ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
ফরিদপুর দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে জিংক সমুদ্ধ ব্রি ৭৪,ব্রি  ৮৪ জাতের ধানের আবাদ

ফলন ও পুষ্টিগুন বেশি হওযায় খুশি কৃষকরা

ফরিদপুর দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে জিংক সমৃদ্ধ ব্রি ৭৪ ও ৮৪ জাতের ধানের আবাদ। এই ধানে জিংক সমৃদ্ধ থাকায় পুষ্টিগুন বেশি ও ফলন বেশি হওয়ায় কৃষকরা ঝুঁকে পরছে এই ধান চাষে। হারভেষ্ট প্লাস বাংলাদেশের সহযোগীতায় ও স্থানীয় বেসরকারী সংস্থা একেকে ও কৃষি বিভাগ যৌথ ভাবে এই ধান চাষে  কৃষকদের বীজ, সার, প্রশিক্ষনসহ দিচ্ছে নানা সহায়তা।

মঙ্গলবার সকাল ১১টায়  সদর উপজেলার আলিয়াবাদ ইউনিয়নের পশ্চিম আলিয়াবাদ গ্রামে জিংক সমৃদ্ধ ব্রি ৭৪ ব্রি ৮৪ জাতের ধানের কর্তন কাজের উদ্বোধন করেন ফরিদপুর সদর উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ আবুল  বাসার মিয়া। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আলী আহমেদ,আমরা কাজ করি (একেকের) সমন্বয়কারী এম এ কুদ্দুস মিয়া,ফিল্ড অফিসার মোঃ রুবায়েত ইসলাম। এসময় কৃষক মোঃ ইফজাল খান ও মোঃ জামাল মোল্লার ২ একর জিংক সমৃদ্ধ ব্রি ৭৪ ব্রি ৮৪ জাতের ধান কর্তন করা হয়।

উপজেলা কৃষি অফিসার আবুল বাসার মিয়া জানান,এবছর সদর উপজেলায় ৪৭ হাজার হেক্টর জমিতে বোর ধান আবাদ করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রাই ৪শত হেক্টর জমিতে জিংক সমৃদ্ধ ব্রি ৭৪ ব্রি ৮৪ জাতের ধানের আবাদ হয়েছে।  তিনি আরো বলেন ব্রি ৮৪ প্রতি হেক্টরে ফলন হয় ৮ মেট্রিক টন ও ব্রি ৭৪ প্রতি হেক্টরে ফলন হয় ৯.০১ মেট্রিক টন। তিনি বলেন, আমরা জিংক সমৃদ্ধ ধান চাষে কৃষকদের উদ্বদ্ধ করে থাকি,তাদের প্রশিক্ষন প্রদানসহ নানা সহায়তা দেওয়া হয়।

একেকের সমন্বয়কারী কুদ্দুস মিয়া জানান, অন্য অন্য জাতের ধানের চেয়ে ব্রি ৭৪ ও ৮৪ জাতের ধানের ফলন বেশি হয়। আর এই ধানে জিংক সমৃদ্ধ থাকায় শিশুদের শারীরিক বৃদ্ধি ও মেধার বিকাশ হয়,ক্ষুধামন্দা দুর হয়,ছেলে মেয়েরা লম্বা হয়, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়,গর্ভবতী মায়েদের স্নায়ু দূর্বলতা দুর হয়।

কৃষক মোঃ ইফজাল খান বলেন,আমি এই বছর একেকের পরামর্শে  জিংক সমৃদ্ধ ধানের চাষ করছি,এই ধানের  ফলন ভলো । অনেক কৃষক আমার কাছে এই ধানের বীজ চেয়েছে। আগামীতে আমিও চাষ করবো এবং অন্য কৃষকদের ও বীজ দিবো চাষের জন্য।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

ফেব্রুয়ারি ২০২৩
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« জানুয়ারি  
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।