• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
অভিমান শেষ হচ্ছে শীতের, রাজশাহীতে আসতে পারে শৈত্যপ্রবাহ

ছবি প্রতিকী

মোঃ আলাউদ্দিন মন্ডল, রাজশাহী:-

আসছে মাঘ। এ সময় শীতে কাঁপ ধরার কথা; কিন্তু তা হচ্ছে না। ডিসেম্বরে এক সপ্তাহের শৈত্যপ্রবাহ বিদায় নেওয়ার পর রাজশাহীসহ দেশের বেশিরভাগ এলাকায় যেন বসন্তের আবহ। এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে দিনে রোদ, রাতেও উত্তাপ ছড়াচ্ছে। অবশেষে শীতের অভিমান শেষ হচ্ছে।

আজ মঙ্গলবার থেকে তাপমাত্রা কিছুটা কমতে শুরু করবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এরপর চলতি মাসে মাঝামাঝিতে আসতে পারে শৈত্যপ্রবাহ, যা দুই থেকে তিন দিন স্থায়ী হতে পারে। হঠাৎ তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ার কারণ হিসেবে আরব সাগর থেকে আসা জলীয় বাষ্পপূর্ণ উষ্ণ বায়ুকে চিহ্নিত করে আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ আরিফ হোসেন বলেন, গতকাল সোমবার রাত থেকে তাপমাত্রা কমতে শুরু করবে।

চলতি মাসের মাঝামাঝিতে একটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। প্রথমে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ হলেও এর তীব্রতা বাড়তে পারে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে চলতি মাসের শেষের দিকে আরেকটি তীব্র শৈত্যপ্রবাহ আসতে পারে। সেটি বেশ কয়েক দিন স্থায়ী হতে পারে।তিনি বলেন, গত বছর ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি পর্যন্তও দেশের কোনো কোনো জায়গায় শৈত্যপ্রবাহ ছিল।

সেই হিসেবে বলা যায়, এখনই শীতের শেষ নয়।এদিকে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে বিশেষজ্ঞ কমিটির এক প্রতিবেদনও বলছে, মাঘে বেশ ভালোভাবেই জেঁকে ধরবে শীত। জানুয়ারিতে সামগ্রিকভাবে দেশে স্বাভাবিকের চেয়ে কম বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

এ মাসে দেশে দু-একটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। এর মধ্যে একটি তীব্র (৪-৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস) শৈত্যপ্রবাহে রূপ নিতে পারে।আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, গতকাল দেশের সবচেয়ে কম তাপমাত্রা ছিল শ্রীমঙ্গলে, ১২ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল কক্সবাজারে, ৩১ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকার তাপমাত্রা নেমেছিল ১৭ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

ডিসেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« নভেম্বর  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।