• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
সভ্যতা, ভদ্রতার মাত্রা ছাড়িয়েছে এরা’, অনুষ্কা-বিরাটের মেয়ের Fake ছবি ভাইরাল

ছবি-সংগৃহীত

বিনোদন ও খেলার দুনিয়ার পাশাপাশি নেটদুনিয়াতে খুশির জোয়ার। অনুষ্কা শর্মা এবং বিরাট কোহলির জীবনে এসেছে ফুটফুটে কন্যাসন্তান। বিরাট নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে ইংরেজি ও হিন্দি ভাষায় লেখেন, “আজ (১১ জানুয়ারি) বিকেলে আমাদের পরিবারে ফুটফুটে এক কন্যাসন্তানের আগমন হয়েছে। এত ভালবাসা, শুভেচ্ছা এবং প্রার্থনার জন্য আপনাদের অনেক ধন্যবাদ। অনুষ্কা এবং সদ্যোজাত দু’‌জনেই ভাল আছে।” এই খুশির খবরের অপেক্ষায় ছিল দেশবাসী। অবশেষে এল সেই সুখবর।

মুম্বইয়ের এক বেসরকারি হাসপাতাল, ব্রিজ ক্যান্ডিতে জন্মগ্রহণ করল বিরাট-অনুষ্কার কন্যা সন্তান। তার কিছু সময় পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় সুখবর দেন বিরাট কোহলি।

টুইটে কেবল সুখবরই নয়, আরও এক বার্তা দিয়েছিলেন বিরাট। তাঁদের ব্যক্তিগত জীবনকে যেন সম্মান করে সকলে। সাংবাদমাধ্যম হোক বা সাধারণ মানুষ, দম্পতির জীবনে যেন কোনও অনাধিকার প্রবেশ না ঘটে।

তাঁদের মেয়ের ছবি লুকিয়ে তোলার চেষ্টা যেন না করা হয়। এ কথা পরোক্ষভাবে বুঝিয়ে দিয়েছেন বিরাট। ২৪ ঘন্টা কাটার আগেই অনুষ্কার সঙ্গে একটি বাচ্চার ছবি ভাইরাল হয় নেটদুনিয়ায়।

ফোটোশপের মাধ্যমে কনও ফেক ছবি ভাইরাল করা হয়েছে কিনা সেই প্রশ্নই উঠছে বারে বারে। একাধিক ভক্তদের মতে ছবিটি ফেক।

তারা রীতিমত এই অনামী এডিটরের উপর ক্ষোভ উগরে দিয়েছে। ‘ভদ্রতা, সভ্যতার সীমা ছাড়িয়েছে সকলে। ফেক ছবি ভাইরাল করে বেড়ানোর কারণ কী।’

এই কারণেই কি বিরাট ব্যক্তিগত জীবনের বিষয়টি লিখেছেন টুইটে। নেটিজেনদের মতই অনুষ্কাও দিন কতক আগেও ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন এক সংবাদমাধ্যমের উপর।
অনুষ্কা এবং বিরাটের ব্যক্তিগত মুহূর্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করায় সেই সংবাদমাধ্যমকে নেটদুনিয়ায় কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন।

অনুষ্কা এবং বিরাট নিজেদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে অত্যন্ত ওয়াকিবহল। প্রেম, বিয়ে সবই করেছেন মিডিয়া থেকে দূরত্ব বজায় রেখে রেখেছেন। সদ্যোজাতকে নিয়ে কোনও রকম বাড়াবাড়ি সহ্য করবেন না তাঁরা।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

ডিসেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« নভেম্বর  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।