• ঢাকা
  • রবিবার, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ ইং
সদরপুরে ১২ বছরের মেয়ের সাথে ৬০ বছরের বৃদ্ধার বিয়ে, কারাদণ্ড দিলেন ইউএনও

ফরিদপুরের সদরপুরে এবার ব্যতিক্রম এক বিয়ের ঘটনা ঘটেছে। ৬০বছরের বৃদ্ধা মোহাম্মাদ ফকির ১২বছরের এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেনির ছাত্রী কে বিয়ের ঘটনা ঘটে। গোপনে নোটারী পাবলিক এর মাধ্যমে গত ২০অক্টোবর শিশু বৃদ্ধার বিয়ে হয়। বিয়ের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন মেয়ের মা ফাতেমা বেগম। বাল্য বিয়ের ব্যাপারে মেয়ের বাবা মোঃ হাবিব পেয়াদা বাঁধা দিলে তার স্ত্রী গোপনে বিয়ের পিঁড়িতে বসান নাবালিকা কন্যাকে। এ ঘটনায় মেয়ের বাড়িতে নতুন জামাই হিসেবে মোহাম্মদ গেলে মেয়ের অন্যান্য স্বজন ও প্রতিবেশীরা তাকে আটক করে।

ঘটনা খবর পেয়ে আজ শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে সদরপুর উপজেলার ইউএনও পূরবী গোলদার তাৎক্ষণিক মেয়ের বাড়িতে গিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালিয়ে মোহাম্মদ,মেয়ের মা ফাতেমা বেগম, বিয়ের সাথে জড়িত মেয়ের নানা ও নানিকে আটক করেন। বাল্যবিয়ের দায়ে বৃদ্ধ মোহাম্মদ কে ১বছরের জেল ও ৫০হাজার টাকা জরিমানা দায়ের করেন। অর্থ অনাদায়ে আরও ৩মাসের জেল। অপরদিকে মেয়ের মা ফাতেমা বেগম কে ৬মাসের জেল ও মেয়ের নানা নানীকে ১মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী হাকিম ও ইউএনও পূরবী গোলদার।

বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭এর বিভিন্ন ধারায় এ শাস্তি দেওয়া হয়। আদালত শেষে দন্ডিতদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে। জানা গেছে,মোহাম্মদ ফকির সদরপুর উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়নের শৌলডুবী গ্রামের মৃত কালু ফকিরের পুত্র। বিয়ের ঘটনা ঘটে সদরপুর উপজেলার সতেররশি গ্রামে।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

নভেম্বর ২০২০
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« অক্টোবর  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।