• ঢাকা
  • শনিবার, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২১শে মে, ২০২২ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
আইপিএল এ টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত চেন্নাই সুপার কিংসের

টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত চেন্নাই সুপার কিংসের।

প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি গতবারের চ্যাম্পিয়ন রোহিতের মুম্বই ও ধোনির চেন্নাই।

শনিবার মুম্বই ইন্ডিয়ান্স বনাম চেন্নাই সুপার কিংস ম্যাচ দিয়েই শুরু হয়ে গেল এবারের আইপিএল ৷ এদিন টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন চেন্নাই সুপার কিংস অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি

প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি গতবারের চ্যাম্পিয়ন রোহিতের মুম্বই ও ধোনির চেন্নাই। করোনা আবহে একাধিক নতুন নিয়ম মেনে শুরু আইপিএল-১৩ পর্ব। টুর্নামেন্ট শুরুর আগে ঠিক কোন জায়গায় দাঁড়িয়ে রয়েছে সবচেয়ে বেশিবার চ্যাম্পিয়ন হওয়া মুম্বই ইন্ডিয়ান্স? দেখে নেওয়া যাক দলের শক্তি ও দুর্বলতার দিকগুলো কী কী।

শক্তি 1) ম্যাচ উইনার- রোহিত, হার্দিক, বুমরাহ, পোলার্ডের মত একাধিক ম্যাচ উইনার রয়েছে মুম্বই শিবিরের। প্রায় হারা ম্যাচের রং বদলে দিতে পারে যে কেউ।

2) দেশীয় শক্তি- পোলার্ড, ডি কক, বোল্ট, ক্রিস লিনের মত বিদেশি ক্রিকেটার থাকলেও মুম্বই দলের আসল শক্তি ভারতীয় ব্রিগেড। অধিনায়ক রোহিত শর্মার মতো দুর্দান্ত ওপেনার।

বুমরাহের মত ভারতের সেরা বোলার রয়েছে দলে। ক্রুনাল পাণ্ডিয়া ও হার্দিক পাণ্ডিয়ার মত অলরাউন্ডাররা দলের আসল শক্তি। মিডল অর্ডারে সূর্যকুমার যাদব যে কোনও দিন ম্যাচের রং বদলে দিতে পারেন। 3) সেট টিম- দীর্ঘদিন ধরে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দলটা প্রায় একই রেখে দিয়েছে। ফলে বাকি দলগুলো থেকে মুম্বই দলের ক্রিকেটারদের মধ্যে বোঝাপড়া সবথেকে বেশি ভাল। লম্বা লিগের জন্য এটা একটা এক্স ফ্যাক্টর। গত নিলামের পর বাড়তি শক্তি যোগ হয়েছে কেকেআরের সাফল্য পাওয়া ওপেনার ক্রিস লিন ও কুল্টার নাইলের মতো গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটারের অন্তর্ভুক্তি। দুর্বলতা 1) মালিঙ্গার অনুপস্থিতি- চার বারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বইয়ের সাফল্যের অন্যতম কারণ ছিলেন শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার মালিঙ্গা। ডানহাতি এই ফাস্ট বোলারের হাত ধরে গতবছর আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল রোহিতের দল। শেষ ওভারে দুরন্ত বল করেন এই ক্রিকেটার।

১৭০ উইকেট পাওয়া মালিঙ্গার না থাকাটা সত্যিই সমস্যায় ফেলতে পারে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে। ব্যক্তিগত কারণে টুর্নামেন্ট শুরুর আগে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন লাসিথ মালিঙ্গা। 2) স্লো স্টার্টার- আইপিএলে এর আগে দেখা গিয়েছে প্রথম দিকটা খুব একটা ভাল শুরু করতে পারে না মুম্বই। ২০১৪ সালে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে আয়োজিত হওয়া আইপিএলের প্রথম পর্বের পাঁচটি ম্যাচের মধ্যে সবকটিতেই হেরেছিল মুম্বই। 3) স্পিন সমস্যা- দলে একাধিক ম্যাচ উইনার থাকলেও রোহিতের দলে নামকরা কোনও স্পিনার নেই। সংযুক্ত আরব আমিরশাহির মাঠগুলোতে উইকেট সবসময় স্লো টার্নার হয়। ফলে স্পিনাররা বেশি সহায়তা পান। মুম্বই দলে রাহুল চাহার কিংবা ক্রুনাল পান্ডিয়া ছাড়া আর কোনও স্পিনার নেই। ফলে সমস্যায় পড়তে পারে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

মে ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« এপ্রিল  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১