• ঢাকা
  • সোমবার, ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জুলাই, ২০২৪ ইং
আলফাডাঙ্গায় রাজাকার পুত্রকে মনোনয়নের সুপারিশ করায় মানববন্ধন

আলফাডাঙ্গা (ফরিদপুর )প্রতিনিধিঃ

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় উৎকোচের বিনিময়ে রাজাকার পুত্র হারিচুর রহমান সোহানকে চেয়ারম্যান পদে গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের মনোনয়নের জন্য নাম সুপারিশের প্রতিবাদে, গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের আয়োজনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করা হয়েছে।

আজ রবিবার (২০ নভেম্বর) বিকালে গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ মোনায়েম খানের নেতৃত্বে আলফাডাঙ্গায় নতুন প্রেসক্লাব চত্বর ও মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স এর সামনে, উক্ত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য দেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি, গোপালপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইনামুল হাসান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নাজমুল ইসলাম রানা, স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা নবাব আলী খান প্রমুখ।

এসময় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফরিদ উদ্দিন,বীরমুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন,নবাব আলী খান সহ উক্ত মানববন্ধনে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড কাউন্সিলের সদস্য বৃন্দসহ শত শত মানুষ অংশ গ্রহণ করে।
মানববন্ধন শেষে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
উল্লেখ্য গত কাল (১৯ নভেম্বর) শনিবার ইউনিয়ন ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বৃন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের পার্টি অফিসে ভোট প্রদান করেন। এতে হারিচুর রহমান সোহান পান ১১ ভোট এবং মোনায়েম খানকে দেখানো হয় ৮ ভোট। তবে মোনয়েম খানের দাবি তিনিই ১১ ভোট পেয়েছেন। তিনি আরো বলেন উপজেলা মনোনয়ন বোর্ড উৎকোচের বিনিময়ে তাকে হারিয়ে সোহানের নাম ১ নম্বরে পাঠিয়েছেন। তবে মোনায়ম খানের এ অভিযোগ সত্য নয় বলে দাবি করে আলফাডাঙ্গা উপজেলা মনোনয়ন বোর্ডের প্রধান উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা এসএম আকরাম হোসেন বলেন আমরা ভোটের মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তি করেছি।

উক্ত সিদ্ধান্ত টি তৃনমূল তথা ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের সমন্বয়ে হয়েছে। এখানে আমাদের উপজেলা আওয়ামী লীগের কোন ভূমিকা নেই। উপজেলা আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন বলে তিনি দাবি করেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

জুলাই ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জুন    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।