• ঢাকা
  • সোমবার, ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জুলাই, ২০২৪ ইং
দেশি ব্ল্যাক বেঙ্গল খাসি বিক্রির উদ্যোগ অনলাইনে, মাংস প্রতি কেজি ৪৭৫ টাকা

করোনাভাইরাস মহামারীর দাপটে, যখন দেশের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা কোণঠাসা হয়ে পড়েছে, অনেকেই চাকরি হারিয়ে ফিরে যাচ্ছে গ্রামে, তখন ভিন্ন ভিন্ন প্রতিষ্ঠানে নিজেদের ব্যবসায়িক ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে নতুন উদ্যমে কাজে নেমে পড়েন ৬ জন বন্ধু। যৌথ উদ্যোগে প্রতিষ্ঠা করেন HEXA Trading।

এর আগে সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে, নানা ধরনের সচেতনতামূলক ও কল্যাণমুখী কাজে দলবেঁধে অংশ নিয়েছে বন্ধুদের এই দলটি। তাই নতুন উদ্যোগেও, ব্যবসায়ের চেয়ে সামাজিক দায়বদ্ধতাই, বেশি গুরুত্ব পেয়েছে এই তরুণদের ভাবনায়।

এই আগ্রহের কারণেই, স্বল্প সামর্থের মধ্যে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় উদ্যোগী হয় তারা।

আসছে মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আযহা। আর প্রচলিত কোরবানির হাটে পশু ক্রয়-বিক্রয় এবং পশু জবাই ও মাংস প্রস্তুতের আনুষ্ঠানিকতা, বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণকে আরও ত্বরান্বিত করতে পারে।

তাই অনলাইনে দেশি ব্ল্যাক বেঙ্গল জাতের খাসি বিক্রির উদ্যোগ নেয় হেক্সা। শুধু তাই নয়, নিজস্ব পশু জবাই কেন্দ্রে, নিজেদের কসাই দিয়ে কোরবানি এবং মাংস প্রস্তুতকরণের ব্যবস্থাও করেছে তারা। যা ঝুঁকিমুক্তভাবে ক্রেতাদের ঘরে বসেই, কৃষক/খামারিদের কাছ থেকে সংগৃহীত খাঁটি দেশি ছাগল পেতে সাহায্য করবে।

একই সঙ্গে পশু জবাই ও মাংস প্রস্তুতকরণের ঝামেলা থেকেও, তাদের মুক্তি দিবে।

অনলাইনে সরকারিভাবে চালু করা, “ফুড ফর নেশন”-এর কুরবানির হাটের পাশাপাশি ফেসবুকেও প্রতিষ্ঠানটির এই সামাজিক উদ্যোগ, অত্যন্ত প্রশংসিত হচ্ছে।

জীবিত খাসি প্রতি কেজি মাত্র ৪৭৫ টাকায়, বিক্রির ঘটনা অনেককেই অবাক করেছে। কারণ কোরবানির বাজারে, এত অল্প দামে পশু সরবরাহের নজির খুব একটা নেই।

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায়, নামমাত্র খরচে পশু কুরবানি ও মাংস প্রস্তুতের দায়িত্ব নেওয়ার উদ্যোগকেও স্বাগত জানাচ্ছে সবাই।

উদ্যোক্তাদের একজন জানালেন, শুধুমাত্র করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলাতেই তারা ভূমিকা রাখছেন না, বরং কুষ্টিয়া, যশোর, চুয়াডাঙ্গার প্রত্যন্ত অঞ্চলে, সম্পূর্ণ দেশি ব্ল্যাক বেঙ্গল জাতের ছাগল পালন করা খামারি ও কৃষকদের পৃষ্ঠপোষকতা দিতেও তারা উদ্যোগী হয়েছেন।

সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে পশু সংগ্রহ করেন বলে, তারা অন্যদের চেয়ে কম দামে পশু সরবরাহ করতে পারছেন। আবার কৃষকও বেশি লাভবান হচ্ছে বলে, তারা শতভাগ দেশি জাতের পশু পালনে আরো বেশি আগ্রহী হয়ে উঠবে, এমনটাই বিশ্বাস উদ্যোক্তাদের।

এবছর নিজেদের সামর্থের মধ্যে শুধুমাত্র ঢাকার মধ্যেই পশু সরবরাহ করলেও, সরকারি সহযোগিতা ও পৃষ্ঠপোষকতা পেলে পরবর্তীতে বিভাগীয় শহর এবং পর্যায়ক্রমে জেলা শহরগুলোতে আধুনিক পশু জবাই কেন্দ্র স্থাপন ও নিজস্ব কসাই নিয়োগের কথা ভাবছে প্রতিষ্ঠানটি।

প্রতিষ্ঠানটির এই মহৎ উদ্যোগকে স্বাগত জানাতে, কিংবা আপনার কাঙ্খিত দেশি জাতের ছাগল কিনতে, ‘ফুড ফর নেশন’-এর সরকারি অনলাইন কোরবানির হাট কিংবা ফেসবুক পেইজ (www.facebook.com/HEXATrading)-এ যোগাযোগ করতে পারেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

জুলাই ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জুন    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।