• ঢাকা
  • সোমবার, ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৬ই মে, ২০২২ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
পটলের দুইটি রেসিপি

প্রায় সারাবছর পাওয়া যায়। এটি খাদ্য গুনে পরিপূর্ণ একটি সবজি। এতে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন এ, ভিটামিন বি ১, ভিটামিন বি ২ ও ভিটামিন সি এর সাথে সাথে আয়রণ, ফসফরাস, ও প্রচুর পরিমানে ডায়েটারি ফাইবার থাকে। অর্থাৎ এটি আমাদের শরীরের জন্য অত্যন্ত ভালো। কিন্তু পটল খেতে অনেকেই খুব একটা পছন্দ করেন না। তাই আজ থাকছে পটলের তিনটি সেরা রেসিপি। যারা পটল খেতে ভালোবাসেন না তারা এই রেসিপি  বাড়িতে ট্রাই করে দেখতেই পারেন।

মালাই পটল
উপকরণ
পটল ৮ -১০। পেঁয়াজ দুটি মাঝারি মাপের কুচোনো। আদা বাটা ১ চা চামচ। রসুন বাটা ১ চা চামচ। জিরে গুঁড়ো ১ চা চামচ। ধনে গুঁড়ো ১চা চামচ ,কাশ্মীরি মির্চ পাউডার ১ বড় চামচ, গরম মশলা গুঁড়ো ১ চা চামচ। হলুদ গুঁড়ো ১ চা চামচ। লবন স্বাদ অনুযায়ী। চিনি স্বাদ অনুযায়ী। ফ্রেশ ক্রিম ১/২ কাপ। এলাচ ২-৩ টি। দারচিনি ১টি ১ ইঞ্চি। লবঙ্গ ৩-৪ টি। তেল।

প্রণালী
প্রথমে পটল গুলিকে ভালো করে ঘষে ওপরের খোসাটিকে পরিস্কার করে নিতে হবে। এবার পটল গুলিকে লম্বালম্বি করে মাঝখান থেকে কেটে অল্প লবন, চিনি হলুদ মাখিয়ে ৫ মিনিট রেখে দিতে হবে। ৫ মিনিট পর পটলগুলিকে হালকা করে ভেজে একটি পাত্রে রেখে দিন।

এবার কড়াইতে তেল গরম করে প্রথমে অল্প জিরে ও গোটা গরম মশলাগুলি দিয়ে  তাতে পেঁয়াজ কুচিগুলি দিয়ে দিন। অল্প নাড়াচাড়া করে নিন। পেঁয়াজের রঙ অল্প বাদামি হতে শুরু করলে তাতে আদা বাটা ও রসুন বাটা দিয়ে দিন। একটু নাড়াচাড়া করে তাতে গুঁড়ো মশলাগুলি দিয়ে ভালো নাড়াচাড়া করে নিতে হবে। এবার ওতে স্বাদ মতো লবন ও চিনি মেশান। এবার ভাজা পটলগুলি মশলার সাথে মিশিয়ে নিন। অল্প গরম জল দিয়ে দিন।ঢাকা বন্ধ করে গ্যাসের আঁচ কমিয়ে দিন। পটল প্রায় সেদ্ধ হয়ে আসলে ওতে ফ্রেশ ক্রিম মিশিয়ে দিন। ৩ -৪ মিনিট পর ওপর থেকে গরম মশলা গুঁড়ো ছড়িয়ে গ্যাস বন্ধ করে দিন।গরম গরম  রুটি বা পরোটার সাথে পরিবেশন করুন।

স্টাফ পটল
উপকরণ
পটল ১০ থেকে ১২ টি।

স্টাফিং এর জন্য লাগবে
মটন কিমা  ৫০০ গ্রাম। পেঁয়াজ ২ টি মাঝারি মাপের কোঁচানো। আদা বাটা ২ বড় চামচ।রসুন বাটা ১ বড় চামচ। কাশ্মীরি মির্চ পাউডার ১ বড় চামচ বা স্বাদ অনুযায়ী। কাঁচালঙ্কা কুচি ১ চা চামচ। গরম মশলা গুঁড়ো ১ চা চামচ। লবন স্বাদ অনুযায়ী। তেল

গ্রেভির জন্য লাগবে
পেঁয়াজ বাটা দুটি মাঝারি মাপের। আদা বাটা ১ চা চামচ। ধোনে গুঁড়ো ১ চা চামচ। জিরে গুঁড়ো ১ চা চামচ। কাশ্মীরি মির্চ পাউডার ১ চা চামচ। লবন ও চিনি স্বাদ মতো। টক দই ১/২ কাপ। হলুদ গুঁড়ো ১ চা চামচ। গরম মশলা গুঁড়ো ১ চা চামচ। তেল।

প্রণালী
প্রথমে মটন কিমা সেদ্ধ করে নিতে হবে। এবার পাত্রে তেল গরম করে প্রথমে পেঁয়াজ ও আদা ও গুঁড়ো মশলা ও লবন সমেত সেদ্ধ করা কিমা ভালো করে ভেজে নিতে হবে। এবার এটিকে আলাদা পাত্রে তুলে রাখুন।

পটলগুলির খোসার  সবুজ অংশটি অল্প ঘষে পরিষ্কার করে ফেলুন। এবার পটোলের দুদিকে অল্প করে কেটে নিন। এবার একটি চামচের পেছন দিক দিয়ে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে পটোলের ভেতরের অংশগুলি বের করে নিতে হবে। মনে রাখতে হবে পটলের  একটি দিকের মুখই  যেন খোলা থাকে এবং পটলের  ভেতরটি যেন পুরোপুরি পরিষ্কার হয়। অন্য পটল গুলিও এভাবেই পরিষ্কার করে নিতে হবে। এবার পটলের ভেতর আগে থেকে বানিয়ে রাখা মটন কিমার মিশ্রণটি ভরে দিন। এবার ময়দার লেচি বানিয়ে পটলের  মুখ গুলি ভালো করে আটকে দিন। এবার তেলে পটল গুলি খুব সাবধানে ভালো করে বাদামি করে ভেজে নিন। ভাজা হয়ে গেলে সরিয়ে রাখুন।

এবার ওই একই পাত্রে তেল গরম করে ওতে পেঁয়াজ বাটা অদা বাটা দিয়ে ভালো করে নাড়াচাড়া করে নিন। এবার গুঁড়ো মশলাগুলি দিয়ে ভালো করে ভেজে নিন। স্বাদ মতো লবন ও চিনি মেশান। এবার টক দই মিশিয়ে খুব ভালো করে  মশলার সাথে মিশিয়ে নিন। তেল ও মশলা আলাদা হয়ে গেলে পরিমান মতো গরম জল ঢেলে মশলার সাথে মিশিয়ে দিন। জল ফুটতে শুরু করলে ওতে ভেজে রাখা পটল গুলি খুব সাবধানে ঢেলে দিন। পাত্রটি ঢেকে গ্যাসের আঁচ কমিয়ে দিন। ৫ থেকে ৭ মিনিট পর ঢাকনা সরিয়ে গরম মশলা ছড়িয়ে দিন ও গ্যাস বন্ধ করে দিন। পরিবেশন করার সময়ে আটকানো পটলের মুখ খুলে দেবেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

মে ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« এপ্রিল  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১