• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১১ই আগস্ট, ২০২২ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
সদরপুরে আগুনে পুড়ে গেল পোষাকের ১৩টি দোকান, নিঃস্ব  হলেন ব্যবসায়ীরা

ছবিঃ সদরপুর বাজারের দর্জি গলিতে আগুনের চিত্র।

মোঃ সাব্বির হাসান,সদরপুর,ফরিদপুর :-

ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার সদরপুর বাজারে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৬টার দিকে এক ভয়াবহ আগুনের ঘটনা ঘটেছে।

আগুনে সদরপুর বাজারের দর্জিগলির একত্রে থাকা ১৩টি দোকানসহ মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এছাড়াও আগুনের প্রচন্ড তাপদাহে পাশের আরও ৬টি দোকানের মালামালের ক্ষতি হয়েছে।

ঈদকে সামনে রেখে প্রতিটি দোকানের মালিকরা ধার দেনা,ঋণ করে মালামাল ক্রয় করে দোকানে মালামাল উত্তোলন করেছিলেন। ক্ষতিগ্রস্থ দোকানের ক্ষয়ক্ষতি হিসাবে প্রাথমিক ধারনা করা হচ্ছে প্রায় দুই কোটি টাকার। হঠাৎ আগুনে ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান পুড়ে যাওয়ায় দোকানের মালিকরা নিঃস্ব হয়ে পড়েছে।

জানা গেছে, ভোরে বাজারের অন্যদোকানে থাকা লোকজন আগুনের তাপদাহের টের পেয়ে বাইরে বেরিয়ে এলে আগুন দেখতে পেয়ে বিভিন্ন মাধ্যমকে সংবাদ দেয়। পরে এলাকাবাসীরা এগিয়ে আসে। বাজারের দোকানদার স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস কে খবর দিলে তারা ঘটনাস্থলে এসে প্রায় দুই ঘন্টা চেষ্ঠার পর আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে।

আগুনের সুত্রপাত সম্পর্কে প্রাথমিক ধারনা করা হচ্ছে ভস্মিভূত প্রতিটি দোকানে থান কাপড়ের সাথে যুক্ত রয়েছে পোষাক তৈরীর টেইলার্স। বেপারী ও খান টেইলার্স দোকান থেকে গ্লোব বা আয়রন থেকে সৃষ্ট হতে পারে আগুনের সুত্রপাত।

আগুন নিয়ন্ত্রনে সদরপুর, ভাঙ্গার উপজেলার দুইটি ইউনিট কাজ করে। এ ব্যপারে সদরপুর ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন কর্মকর্তা মাহবুর রহমান জানান, অগ্নিকান্ডের ব্যপারে সঠিক কোন কারণ এখনো জানা যায়নি। তবে এই ব্যাপারে তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে, তদন্ত শেষে অগ্নিকান্ডের সুত্রপাত সম্মপর্কে জানা যাবে।

এ ঘটনায় সদরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার পূরবী গোলদার, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কাজী শফিকুর রহমান ও সদরপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ শহিদুল ইসলাম সকাল থেকেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, ক্ষতিগ্রস্থ দোকানীদের সাহায্যের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ঘটনায় বাজারের অন্যান্য ব্যবসায়ী সমবেদনা জানিয়েছেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

আগষ্ট ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« জুলাই  
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।