• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩০শে নভেম্বর, ২০২১ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
মাস্ক না পরায় তিন বৃদ্ধকে কান ধরিয়ে দাঁড় করিয়ে রাখলেন এসিল্যান্ড সাইয়েমা হাসান

কান ধরিয়ে দুই বৃদ্ধকে দাঁড় করিয়ে ছবি তুলছেন সাইয়েমা হাসান

নভেল করোনাভাইরাস প্রতিরোধে যশোরের মনিরামপুরে মাস্ক না পরায় তিন বৃদ্ধকে কান ধরিয়ে দাঁড় করিয়ে রাখার ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালতে এ সাজা দেওয়া হয়।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাইয়েমা হাসান এই সাাজা দেন। কান ধরিয়ে দাঁড় করিয়ে সাজা দেওয়ার ঘটনাটি নিজের মোবাইল ফোনে ছবিও তুলে রেখেছেন তিনি।

আরও পড়ুন -ঃএমপি মোশাররফ হোসেন ৫০০ পিপিই দিলেন চিকিৎসকদের মাঝে

তিন বৃদ্ধকে কান ধরানো এবং তার ছবি তোলার মুহূর্তের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সামলোচনার ঝড় ওঠে।

জানা যায়, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় লোকসমাগম না করতে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাইয়েমা হাসানের নেতৃত্বে শুক্রবার বিকেল থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান চালানো হয়।

রও পড়ুুন   ঃঃ পুত্রবধূর হাতে শ্বাশুড়ি খুনের অভিযোগ

এই সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের সামনে পড়েন প্রথমে দুই বৃদ্ধ। এর মধ্যে একজন বাইসাইকেল চালিয়ে আসছিলেন। অন্যজন রাস্তার পাশে বসে কাঁচা তরকারি বিক্রি করছিলেন। কিন্তু তাদের মুখে মাস্ক ছিল না।

এ সময় পুলিশ ওই দুই বৃদ্ধকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করলে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সাইয়েমা হাসান শাস্তি হিসেবে তাদেরকে কান ধরিয়ে দাঁড় করিয়ে রাখেন। শুধু তাই নয়, এ সময় নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নিজেই তার মোবাইল ফোনে এ চিত্র ধারণ করেন। এ ছাড়াও পরবর্তীতে ভ্রাম্যমাণ আদালত আরও একজন ভ্যান চলককে একইভাবে কান ধারিয়ে দাঁড় করিয়ে রাখেন।

রাতে এ ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার শুরু হয়। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সাইয়েমা হাসান তিন বৃদ্ধকে এ শাস্তি দেওয়ার ঘটনা স্বীকার করেছেন।

কান ধরিয়ে দাঁড় করার বিষয়টি দুঃখজনক উল্লেখ করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহসান উল্লাহ শরিফী জানান, বিষয়টি তিনি খতিয়ে দেখবেন।

সংবাদসুত্রঃসমকাল

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর