• ঢাকা
  • সোমবার, ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
করোনায় ভিটামিন- সি, কার্যকরী ফলাফল

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে পুরো পৃথিবী প্রায় স্তব্ধ। কিন্তু এখনও কোনো প্রতিষেধক তৈরি না হওয়া ঘরবন্দি হয়ে পড়েছেন মানুষ। তবে চীন এবং যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালগুলো করোনাভাইরাস সংক্রমিত রোগীদের চিকিৎসায় পরিপূরক হিসেবে ব্যবহার করছে ভিটামিন সি। কেননা, যেসব করোনারোগীকে উচ্চমাত্রায় ভিটামিন সি-র ডোজ দেওয়া হচ্ছে তারা অন্যদের চেয়ে দ্রুত সুস্থ হচ্ছেন বলে দাবি করা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের নর্থওয়েল হেলথ গ্রুপের ডাক্তার এবং শ্বাসতন্ত্রের রোগ ও বিশেষ স্বাস্থ্যসেবা বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্ড্রু জি ওয়েবার এই তথ্য জানিয়েছেন।

নর্থওয়েল হেলথ গ্রুপের ২৩টি হাসপাতাল আছে নিউইয়র্কে। যার মধ্যে ম্যানহাটন এর লেনক্স হিল একটি।

. অ্যান্ড্রুর রোগীদেরকে প্রতিদিন ৩-৪ বার ১৫০০ মিলিগ্রাম করে ভিটামিন সি-র ডোজ ইঞ্জেকশনের মাধ্যমে দেওয়া হচ্ছে। যা সাধারণ মাত্রার চেয়ে ১৬ গুন বেশি। সাধারণত একজন পুরুষকে প্রতিদিন ৯০ গ্রাম আর একজন নারীকে প্রতিদিন ৭৫ গ্রাম ভিটামিন সি দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়।

ড. অ্যান্ড্রু জানান, চীনের হাসপাতালগুলোতে করোনারোগীদের উচ্চমাত্রার ভিটামিন সি-র ডোজ দিয়ে সুস্থ করা হয়েছিলো। সেখান থেকেই তিনি অনুপ্রাণিত হয়ে তার রোগীদেরও ভিটামিন সি-র উচ্চ ডোজ দিচ্ছেন।

চীনের সাংহাইয়ের রুইজিন হাসপাতালের জরুরি ওষুধ বিভাগের প্রধান ডা. এনকিয়ান মাও ৩৫৯ জন কোভিড-১৯ রোগীকে উচ্চ মাত্রার ভিটামিন সি-র ডোজ দিয়ে সুস্থ করেছেন। তিনি ওই রোগীদের প্রতিদিন ১০ হাজার থেকে ২০ হাজার মিলিগ্রাম করে ভিটামিন সি-র ডোজ দিতেন। এভাবে তাদেরকে ৭-১০ দিন ভিটামিন সি-র ডোজ দেওয়ার পর তারা সকলেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তার রোগীদের একজনও মারা যায়নি।

তিনি গত ১০ বছর ধরে সেপসিস, অগ্নাশয়ের রোগ এবং সার্জারিজনিত ক্ষত শুকানোর চিকিৎসায় উচ্চমাত্রার ভিটামিন সি-র ডোজ দিয়ে চিকিৎসা করে আসছেন।

তবে শুধু নিউইয়র্কের ড. অ্যান্ড্রু জি ওয়েবারই নন বরং আরও অসংখ্য ডাক্তারই এখন করোনারোগীদের চিকিৎসায় উচ্চ মাত্রার ভিটামিন সি-র ডোজ প্রয়োগ করছেন। তবে একেকজন একেক মাত্রায় এই ডোজ দিচ্ছেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

জানুয়ারি ২০২৩
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« ডিসেম্বর  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।