• ঢাকা
  • শনিবার, ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ ইং
মোহনপুরে আগুনে পোড়া বাড়ি পরিদর্শনে জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের বলি ওয়ার্ড যুবলীগের সহঃ সভাপতি সার ও কীটনাশক বিক্রেতার পোড়া ঘরবাড়ি পরিদর্শন করে সমবেদনা জানিয়েছেন রাজশাহী জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আলমগীর মোরশেদ রনজু। এ সময় তিনি বাড়ির মালিক ওয়ার্ড যুবলীগের সহঃ সভাপতি কীটনাশক বিক্রেতা শহিদুল ইসলামকে শান্তনা দেন।

বুধবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে জেলা ও স্থানীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে তিনি স্থানীয় যুবলীগের সহ-সভাপতি সার ও কীটনাশক বিক্রেতার পোড়া ঘরবাড়ি পরিদর্শন করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, তার সাথে উপস্থিত ছিলেন মৌগাছি ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আ.লীগ নেতা আবুল হোসেন, মৌগাছি ইউপি আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুস সবুর মাষ্টার, জেলা যুবলীগ ধর্ম বিযয়ক সম্পাদক আব্দুর রব বাবুসহ স্থানীয় অনেক নেতৃবৃন্দ।

প্রসঙ্গত, ১২ আগষ্ট বুধবার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে উপজেলার মৌগাছি ইউনিয়নের হরিফলা গ্রামে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটে ঘরে রক্ষিত নগদ সাড়ে ৪ লাখ টাকাসহ পাঁচটি ঘরের সকল আসবাবপত্র পুড়ে ছাই গেছে । এ সময় বাড়িতে তার স্ত্রী সন্তান শশুর বাড়িতে ছিলেন। তিনি প্রতিদিনের ন্যায় বাড়ির পাশের মোড়ে তার সার ও কীটনাশক দোকানে ছিলেন। ওই গ্রামের ইয়াছিন আলী মন্ডলের ছেলে শহিদুল ইসলাম। ব্যাংক নেয়া ঋণের টাকা পুড়ে যাওয়ায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন তিনি। নওহাটা ও মোহনপুর ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘন্টাব্যাপি অভিযান চালিয়ে আগুন নেভাতে সামর্থ হয়। মুহূর্তের মধ্যেই পাঁচটি ঘরে আগুন লেগে যায়। আগুনে কর্মসংস্থান ব্যাংক মোহনপুর শাখার ঋণ পরিশোধের (রিকভারী) সাড়ে ৪ লাখ টাকাসহ পাঁচটি ঘরের যাবতীয় আসবাবপত্র পুড়ে যায়। এতে প্রায় নগদ টাকাসহ ৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। পরে ফায়ার সার্ভিসেস কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে নেওয়ার আগেই শহিদুল ইসলামের স্বপ্নসহ ঋণ রিকোভারীর টাকা পুড়ে যায়।
শহিদুল ইসলাম বলেন, করোনা সংকটের কারণে ব্যাংকের লোকজন না থাকায় টাকাগুলো ঘরেই ড্রেসিং টেবিলের ড্রেয়ারে তালাবদ্ধ ছিল। বিদ্যুতের শর্ট সার্কিটের কারণে টাকাসহ সবই পুড়ে গেছে। এতে তার প্রায় ৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

এপ্রিল ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« মার্চ    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।