• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে মে, ২০২৪ ইং
গর্তে লুকিয়ে রাখা চাউল নিয়ে কাড়াকাড়ি ময়মনসিংহের তারাকান্দায়

জাহাঙ্গীর তালুকদার,তারাকান্দা,ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহের তারাকান্দায় ইউ.পি সদস্যের বাড়ির পিছনে লুকিয়ে রাখা হতদরিদ্রদের (১০টাকা কেজির) ৫০ বস্তা চাউল কাড়াকাড়ি করে নিয়ে গেল গ্রামের দরিদ্র লোকজন।

আজ বুধবার ( ২২ এপ্রিল) তারাকান্দা উপজেলার গাঁলাগাঁও গ্রামের মেম্বার আবুল খায়েরের বাড়ির পাশে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন গাঁলাগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউল হক জিয়া।

তিনি বলেন, মেম্বার আবুল খায়েরের বাড়ির পিছনে গর্তের মধ্যে লতাপাতা দিয়ে লুকানো অনেকগুলো চাউলের বস্তা পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা আমাকে জানায়। পরবর্তীতে আমি খোঁজ নিয়ে জানতে পারি অনেকেই এই চাউলের বস্তা কাড়াকাড়ি করে নিয়ে যায়।

এই চাউল কোথায় থেকে এসেছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই চাউল হতদরিদ্রের ১০ টাকা কেজির চাউল। সরকার চাউলের ব্যাপারে কঠোর হওয়ায় হয়তো এখানে কেউ লুকিয়ে রেখেছে। সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে এই ঘটনার সাথে জড়িতদের শাস্তির দাবিও জানান তিনি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গাঁলাগাঁও গ্রামের আমিন,হারেছ,আশরাফুল,সেলিম, মিমতা উদ্দিন,মাইন উদ্দিন,নুরুদ্দিন ও রফিক সহ আরও অনেকে ১/২ বস্তা করে চাউল নিয়েছে।

আমিন ও হারেছ জানান, মেম্বারের বাড়ির পাশে একটি গর্তে লুকিয়ে রাখা চাউলের বস্তা অনেকেই কাড়াকাড়ি করে নিয়ে যাচ্ছে দেখে আমরাও নিয়েছি।
চালের বিষয়ে ইউপি সদস্য আবুল খায়ের বলেন, কার চাউল তিনি সেটা জানেন না।
গাঁলাগাঁও ইউনিয়নের হতদরিদ্রদের ১০ টাকা কেজি চালের ডিলার আব্দুর রহমান তালুকদার জানান, আমি গত ৪/৫ দিন আগে চাল দিয়ে শেষ করে ফেলেছি। এই চাউল কার আমি বলতে পারব না।

তারাকান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল খায়ের বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে এই চাউল কার।

তারাকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চিত্রা শিকারী জানান, এলাকাবাসী চাউল কাড়াকাড়ি করে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি আমি শুনেছি। তদন্ত করে দেখা হবে এই চাউল কোথায় থেকে এসেছে এবং এই ইউনিয়নে কোন ভুয়া কার্ডধারী রয়েছে কিনা সেটা যাচাই-বাছাই করে বাতিল করা হবে।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

মে ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« এপ্রিল    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।