• ঢাকা
  • সোমবার, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ ইং
প্রণোদনা তহবিলে সমবায় খাতকে যুক্ত করার দাবী করেছে বাংলাদেশ সমবায় উন্নয়ন আন্দোলন

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত করোনাভাইরাস(কোভিড-১৯)প্রকোপ এর কারনে দেশের অর্থনীতি চাঙ্গা করতে ৯২ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা দেয়া হবে। সরকার প্রধান এর এই যুগোপযোগী ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন অলাভজানক সংগঠন – বাংলাদেশ সমবায় উন্নয়ন আন্দোলন ও ফরিদপুর জেলা সমবায় ইউনিয়ন (রেজিং নং ৫১-ঢাকা/১৯৬২) ।
চলমান করোনা সংকটে দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে নিয়োজিত স্থানীয় সরকার,পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় আওতাধীন সমবায় অধিদপ্তর এর নিবন্ধিত ১ লক্ষ ৭৭ হাজার সমবায় প্রতিষ্ঠানকে উক্ত তহবিলের আওতায় আনার জন্য দাবী জানিয়েছেন বাংলাদেশ সমবায় উন্নয়ন আন্দোলন এর আহবায়ক ও ফরিদপুর জেলা সমবায় ইউনিয়ন (রেজিং নং ৫১-ঢাকা/১৯৬২) এর সভাপতি নজরুল ভক্ত শেখ ফয়েজ আহমেদ।
তিনি (২৩ এপ্রিল ২০২০২) এক বিবৃতিতে বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক এ বিষয়ে তথ্য প্রকাশ করলেও সেখানে সমবায় সংগঠন সর্ম্পকে কিছু বলা হয়নি। আমরা দেশের সকল সমবায়ীদের পক্ষে সরকারের নিকট বলতে চাই যে, সমবায় সংগঠনগুলো নিজস্ব শেয়ার ও সঞ্চয় দিয়ে প্রাচীনকাল থেকে দেশে দারিদ্র্য বিমোচনে কাজ করে আসছে।সমবায় সংগঠনের সদস্য রয়েছেন একেবারেই প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর নানা পেশার সাধারণ মানুষ। তাঁরা ব্যাংকিং ঋণ সুবিধা হতে বঞ্চিত। সমবায়ীরা তাঁদের নিকটতম এলাকা হতে সমবায় সমিতি থেকে ঋণ গ্রহন সহ উৎপাদনমুখী/বহুমুখী কাজ করে থাকেন। চলমান করোনা সংকট এর কারণে সমিতিগুলোর কার্যক্রম পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে। সদস্যদের ব্যবসা-কাজ কর্ম নেই। এ অবস্থায় সমবায় সংগঠন গুলোর তাদের মূলধন হারিয়ে ফেলবে এই সংকট এর কারনে।
বর্তমান পরিস্থিতিতে সমবায় সংগঠনগুলো ও সদস্যদের মাঝে পুনরায় ঋণ সুবিধা দিতে উক্ত তহবিল হতে কমপক্ষে ১৫০০ শত কোটি টাকা প্রণোদনা সুবিধা প্রদান করা জরুরি বলে বিবৃতি দাবী জানানো হয়েছে ।
তিনি আরও বলেন, দেশের ১ কোটি ১২ লাখ মানুষ সমবায় সামাজিক আন্দোলন বা সমবায় খাতের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন। দেশের অর্থনীতি প্রবৃদ্ধির ২ শতাংশ অবদান রাখেন সমবায় সমিতি। তাই্ এ খাতে প্রণোদনা দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়,সমবায় অধিদপ্তর,বাংলাদেশ ব্যাংক,বাংলাদেশ জাতীয় সমবায় ইউনিয়ন,বিএসবিএল-সমবায় ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে এগিয়ে আসার জন্য তিনি অনুরোধ করেছেন। #

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।