• ঢাকা
  • শনিবার, ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ ইং
ডুমুরিয়ায় মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইনস্টিটিউট’র কৃষক প্রশিক্ষণ

ডুমুরিয়ায় মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইনস্টিটিউট’র কৃষক প্রশিক্ষণ

 

বিজ্ঞপ্তি মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইনস্টিটিউট’র মাটির নমুনা সংগ্রহ পদ্ধতি, সুষম সার ব্যবহার ও ভেজাল সার সনাক্তকরণ বিষয়ক  দিন ব্যাপী কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল  রোববার  ডুমুরিয়া উপজেলার কুমরাইল গ্রামে কুমরাইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এর আয়োজন করা হয়।

মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইনস্টিটিউটের গোপালগঞ্জ-খুলনা-বাগেরহাট-সাতক্ষীরা-পিরোজপুর কৃষি উন্নয়ন প্রকল্প (এসআরডিআই অংগ) এর আওতায় এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়েছে ।  প্রশিক্ষক ছিলেন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক শচীন্দ্র নাথ বিশ্বাস, মনিটরিং ও মূল্যায়ন কর্মকর্তা অমরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস, ঊর্দ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এবিএম মাসুদ হাসান  ও বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা শামসুন নাহার রত্না । প্রশিক্ষণে  উপজেলার বিভিন্ন স্থান হতে আগত ৬০ জন  কৃষাক-কৃষানী অংশ গ্রহণ করেন । তাদের  মাটির নমুনা সংগ্রহ পদ্ধতি, সুষম সার ব্যবহার ও ভেজাল সার সনাক্তকরণ বিষয়ক প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। 

সভায় প্রকল্প পরিচালক শচীন্দ্র  নাথ  বিশ্বাস বলেন, ফসলের খাদ্য ভান্ডার হলো মাটি ।  অপরিকল্পিত ব্যবহারের কারণে মাটির উর্বরতা শক্তি ক্রমেই কমে যাচ্ছে। ফলে ফসলের ফলন ও উৎপাদন আশানুরূপ হচ্ছে না। এমতাবস্তায় প্রয়োজন মাটির উর্বরতা বৃদ্ধি ও সংরক্ষণ করা। এজন্য মাটির উর্বরতা সংরক্ষণসহ ফসলের  কাঙ্কিত ফলন বৃদ্ধির জন্য মাটি পরীক্ষা করে সুষম সার প্রয়োগ করতে হবে। অন্যদিকে অধিক ফসল উৎপাদনের জন্য বর্তমানে বিভিন্ন রাসায়নিক সার ব্যবহার  করা হচ্ছে । কিছু  ব্যবসায়ী সারে ভেজাল দ্রব্য মিশিয়ে নকল সার বা ভেজাল সার তৈরি করে বিক্রি করছে।  এতে মাটির গুণাগুণ  নষ্ট হচ্ছে । তাই এ ব্যপারে কৃষকরা একটু সর্তক হলেই আসল সার ও ভেজাল সারের পার্থক্য বুঝতে পারবে । তিনি মাটির নমুনা সংগ্রহ পদ্ধতি , সুষম সার ব্যবহার ও ভেজাল সার সনাক্তকরণ বিষয়ক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করার পর তা সকল কৃষকের মাঝে ছড়িয়ে  দেয়ার আহ্বান জানান ।  প্রশিক্ষণে কৃষক-কৃষানীদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব প্রদান করা হয়।

 

 

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

জুন ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« মে    
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।