• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং
দেশের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে একটু স্বস্তির খবর দিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

দেশের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ অনেকটা কমে এসেছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা। করোনার সর্বোচ্চ পর্যায় (পিক) বাংলাদেশ ইতিমধ্যে পেরিয়ে এসেছে বলেও জানান তিনি।

সোমবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলমের সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে নাসিমা সুলতানা এসব কথা বলেন।

দেশে বর্তমানে করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার এখন কোন পর্যায়ে জানতে চাইলে অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা বলেন, ‘দেশে কোভিড-১৯ কেস এখন কমতির দিকে। আমরা এখন পিকে নেই, আইইডিসিআরের তথ্যও বলছে আমরা পিক টাইমে নেই।’

নাসিমা সুলতানা বলেন, ‘টেস্ট তুলনামূলকভাবে কমেছে। তবে গত দুই তিনের তুলনায় আজ (২৭ জুলাই) একটু বেশি হয়েছে। তবে আমরা যে পর্যায়ে গিয়েছিলাম, প্রায় ১৯ হাজারের কাছাকাছি সে তুলনায় কম।’

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক বলেন, ‘টেস্ট কমতির দিকেই বলা যায়, কারণ রিয়েল যারা তাদেরই টেস্ট হচ্ছে। যেকোনো উপসর্গ থাকলে বা আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে এলে পরীক্ষা করান। কিন্তু মানুষের পরীক্ষা করার আগ্রহ একটু কম কারণ কেস একটু কমেছে।’

নাসিমা বলেন, ‘একইসঙ্গে ঘনবসতি, বস্তিতে কেস কম, নাই বললেই চলে। উপজেলা-জেলা সব জায়গায় নমুনা নেয়ার ব্যবস্থা আছে। তাই আমরা অনুরোধ করছি কারও উপসর্গ থাকলে যেন টেস্ট করতে আসেন। এখন সরকার নির্ধারিত একটা ফি আছে, সে কারণে অনেকে টেস্ট করতে আসছে না এটা হতেও পারে। ফি এর বিষয়টি যেহেতু মন্ত্রণালয় থেকে নির্ধারিত সে বিষয়ে আমাদের কিছু করার নাই। ফি দিয়েই পরীক্ষা করতে হবে।’

আগে দুপুরে নাসিমা সুলতানা নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে জানান, দেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের ১৪২তম দিনে গত ২৪ ঘণ্টায় এই ভাইরাসে আক্রান্তের হার কমেছে, বেড়েছে সুস্থতার হার। পাশাপাশি কমেছে মৃত্যুর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় ১২ হাজার ৮৫৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় দুই হাজার ৭৭২ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ২১ দশমিক ৫৬ শতাংশ। গতকাল ১০ হাজার ৭৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছিলেন দুই হাজার ২৭৫ জন। নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় এই হার ছিল ২২ দশমিক ৫৭ শতাংশ। আগের দিনের চেয়ে আজ শনাক্তের হার ১ দশমিক শূন্য ১ শতাংশ কম।

দেশে এ পর্যন্ত মোট ১১ লাখ ২৪ হাজার ৪১৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় দুই লাখ ২৬ হাজার ২২৫ জনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। মোট পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ১২ শতাংশ।

তিনি জানান, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ জন মারা গেছেন। গতকালের চেয়ে আজ ১৭ জন কম মারা গেছেন । গতকাল মারা গেছেন ৫৪ জন। এখন পর্যন্ত দেশে এ ভাইরাসে মারা গেছেন দুই হাজার ৯৬৫ জন। শনাক্তের বিবেচনায় আজ মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩১ শতাংশ। আগের দিনও এই হার ছিল ১ দশমিক ৩১ শতাংশ।

নাসিমা সুলতানা জানান, করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতাল এবং বাসায় মিলিয়ে সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৮০১ জন। গতকালের চেয়ে আজ নয়জন বেশি সুস্থ হয়েছেন। গতকাল সুস্থ হয়েছিলেন এক হাজার ৭৯২ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ২৫ হাজার ৬৮৩ জন। আজ শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৫ দশমিক ৫৬ শতাংশ। আগের দিন এই হার ছিল ৫৪ দশমিক ৪৪ শতাংশ। আগের দিনের চেয়ে আজ সুস্থতার হার ১ দশমিক ১২ শতাংশ বেশি। সংবাদসুত্রঃ জুমবাংলা

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

এপ্রিল ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« মার্চ    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।