• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
সমাজের সকল জনগণের জন্য সকল প্রকার সাহায্যের হাত বাড়াতে হবে – জেলা প্রশাসক অতুল সরকার

নিরঞ্জন মিত্র (নিরু) ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধিঃ

স্থানীয় সরকার বিভাগ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ‘কার্যকর ও জবাবদিহিমূলক স্থানীয় সরকার (ইএএলজি) প্রকল্পের সহযোগিতায় এবং জেলা প্রশাসনের আয়োজনে, (১০ আগষ্ট) বুধবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ইএএলজিভুক্ত ইউনিয়ন পরিষদের আইন ও বিধি অনুযায়ী দায়িত্ব ও কর্তব্য এবং কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন কৌশল নির্ধারণ শীর্ষক অবহিতকরণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ফরিদপুর স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক (উপসচিব) মোহাম্মদ আসলাম মোল্লার সভাপতিত্বে, প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে দিনব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক অতুল সরকার। এসময় কর্মশালায় প্রধান অতিথি ইউপি চেয়ারম্যানদের উদ্দেশ্যে বক্তব্যে বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধিদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। পরিষদের মেয়াদকালীন সময়ে জনগণের অংশগ্রহণের মাধ্যমে স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহিতার মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদী কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন এবং বাস্তবায়ন করতে হবে। তিনি বলেন, একজন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব ও কর্তব্য পালন করলে ঐ ইউনিয়নের জনগণের সার্বিক উন্নয়ন সাধিত হবে। চেয়ারম্যান ইচ্ছা করলে ইউনিয়ন পরিষদের সার্বিক কার্যক্রমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করতে পারেন। জনপ্রতিনিধিদের ইচ্ছা থাকলে একটি সুন্দর ইউনিয়ন পরিষদ গড়ে তোলা সম্ভব। গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থায় স্থানীয় পরিকল্পনায় জনমতের প্রতিফলন যতো বেশি হবে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান গুলোও ততো শক্তিশালী ও দক্ষ হবে।

তিনি বলেন, শিক্ষার মান নিশ্চিত করতে হবে, নারী নির্যাতন বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে, সকল পর্যায়ে সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে, সামাজিক সুরক্ষা কার্যক্রমকে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার আওতায় নিয়ে আসতে হবে। জনগণের চাহিদা মোতাবেক প্রকল্প গ্রহণ এবং বাস্তবায়ন করতে হবে। বৃক্ষ রোপন কার্যক্রমকে গতিশীল করতে হবে। গ্রাম আদালতের কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করে ন্যয় বিচারের মাধ্যমে সমাজের অপরাধ নিষ্পত্তি করতে হবে।

জেলা প্রশাসক বলেন, মা ও নবজাতকের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের নির্দেশ দেন।
ইউনিয়ন পরিষদের গুরুত্বপূর্ণ কার্যাবলীর মধ্যে একটি হলো এলাকার জনগণের প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা। এবং প্রতিটি ইউনিয়নে একটি করে মুজিব পাঠাগার স্থাপন করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদেরকে আহ্ববান জানান।

এসময় বলেন, স্থানীয় সরকারের ইউনিয়ন পরিষদের প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা বৃদ্ধিতে ইএএলজি প্রকল্প সফলতার সঙ্গে কাজ করছে। ইএএলজি প্রকল্প ইউনিয়ন পরিষদের ওয়ার্ড সভা, উন্মুক্ত বাজেট সভা, স্থায়ী কমিটি শক্তিশালীকরণ, বার্ষিক প্রতিবেদন প্রকাশ, পঞ্চবার্ষিকী উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়ন, গণশুনানী, স্থানীয় সম্পদ আহরণ/কর নির্ধারণসহ নারী ও শিশুবান্ধব উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণে বিভিন্ন প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সহায়তা প্রদান করছে। এর ফলে ইএএলজিভুক্ত ইউনিয়ন পরিষদগুলো এখন সাধারণ মানুষের কাছে জনবান্ধব সেবা প্রদানকারী হিসাবে দক্ষতার প্রমাণ করেছে বলে জানান জেলা প্রশাসক অতুল সরকার।

কর্মশালা অনুষ্ঠানে ইউনিয়ন পর্যায়ে মা এবং নবজাতকের স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়নে ইউনিয়ন পরিষদের ভূমিকা বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন ফরিদপুর সেভ দ্য চিলড্রেন মামনি এমএনসিএস প্রকল্পের ম্যানেজার ফরিদুল জুলফিকার।

দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালায় ইউএনডিপি ইএএলজি’র ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর মোঃ মনির হোসেন মজুমদারের সঞ্চালনায়, প্রশিক্ষণ প্রদান করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক (উপসচিব) মোহাম্মদ আসলাম মোল্লা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ লিটন আলী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোসাঃ তাসলিমা আলী।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

সেপ্টেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« আগষ্ট  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।