• ঢাকা
  • বুধবার, ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই ডিসেম্বর, ২০২২ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
করেনা ভ্যাকসিন অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পাচ্ছেন কারা

ছবি প্রতিকী

সরকার এর মধ্যেই প্রায় চূড়ান্ত করে এনেছে দেশে কীভাবে বণ্টন হবে করোনাভাইরাসের টিকা। কভিড-১৯ আক্রান্তদের চিকিৎসায় সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে কর্মরত ৬ লাখ স্বাস্থ্যকর্মীকে শুরুতে টিকা দেওয়া হবে। এরপরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, বিচার বিভাগ, প্রশাসন, গণমাধ্যমের সম্মুখ সারির কর্মীদের করোনার টিকা দেওয়া হবে বলে জানা গেছে। টিকাসংক্রান্ত পরিকল্পনাপত্র অনুসারে দেখা যায়, সবার আগে পাবে সরকারি হাসপাতাল ও চিকিৎসা কেন্দ্রে সরাসরি করোনা রোগীদের সেবায় কাজ করা চিকিৎসক, নার্স, টেকনোলজিস্ট, টেকনিশিয়ান, ধাত্রী, ফিজিওথেরাপিস্ট, পরিচ্ছন্নতাকর্মী, কমিউনিটি স্বাস্থ্যকর্মী ও অ্যাম্বুলেন্সচালক, যাদের সংখ্যা তিন লাখ ৩২ হাজার ২৭।

পাশাপাশি পাবেন বেসরকারি হাসপাতাল ও চিকিৎসা কেন্দ্রে সরাসরি করোনা রোগীদের সেবায় কাজ করা ছয় লাখ চিকিৎসক, নার্স, টেকনোলজিস্ট, টেকনিশিয়ান, ধাত্রী, ফিজিওথেরাপিস্ট, পরিচ্ছন্নতাকর্মী, কমিউনিটি স্বাস্থ্যকর্মী ও অ্যাম্বুলেন্সচালক।
এরপরই টিকা পাওয়ার তালিকায় রয়েছেন হাসপাতাল ও চিকিৎসা কেন্দ্রে কাজ করা অন্যান্য বিভাগের আরও ১ লাখ ২০ হাজার চিকিৎসক-নার্স ও অন্যরা। ২ লাখ ১০ হাজার মুক্তিযোদ্ধা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর মধ্যে সরাসরি করোনায় দায়িত্ব পালন করা ৫ লাখ ৪৬ হাজার ৬১৯ জন, সশস্ত্র বাহিনীর ৩ লাখ ৬০ হাজার সদস্য। বিচার বিভাগ, মন্ত্রণালয়, সচিবালয়, জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের ৫ হাজার শীর্ষ কর্মকর্তা। সাংবাদিকদের মধ্যে যারা সরাসরি করোনার খবরাখবর সংগ্রহে কাজ করেছেন এমন ৫০ হাজার গণমাধ্যমকর্মী, সংসদ সদস্য, সিটি করপোরেশন, পৌরসভা, জেলা পরিষদ, উপজেলা পরিষদ ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ১ লাখ ৭৮ হাজার ২৯৮ জন পাবেন। সিটি করপোরেশন ও পৌরসভার অন্যান্য ঝুঁকিপূর্ণ কাজে যুক্ত ১ লাখ ৫০ হাজার জন, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত ষাটোর্ধ্ব বয়সের ৫ লাখ ৮৬ হাজার জন, দাফন ও সৎকারকর্মী ৭৫ হাজার জন টিকা পাবেন। সরকারি ও স্বায়ত্তশায়িত বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস ও অগ্নিনির্বাপককর্মী ৪ লাখ, বন্দরের কর্মকর্তা ও কর্মী ১ লাখ ৫০ হাজার, বিদেশগামী অদক্ষ শ্রমিকরা ১ লাখ ২০ হাজার, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের অন্যান্য সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারী ৪ লাখ, ব্যাংককর্মী ১ লাখ ৯৭ হাজার ৬২১ জন টিকা পাবেন।

যক্ষ্মা, এইচআইভি ও ক্যান্সার রোগী ৬ লাখ ২৫ হাজার, অন্যান্য জরুরি সেবায় জড়িত ৭৭ হাজার ৮০৪ জন। এসব ধাপে ৫১ লাখ ৮৪ হাজার ২৮২ জনের টিকা দেওয়া শেষ হবে। দেশের মোট জনসংখ্যার ৮০ শতাংশ অর্থাৎ ১৩ কোটি ৮২ লাখ মানুষ পর্যায়ক্রমে করোনাভাইরাসের টিকা বিনামূল্যে পাবে। স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (উন্নয়ন ও পরিকল্পনা) অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, ‘আমরা অনেক খুঁটিনাটি বিষয়ও গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনায় নিয়ে টিকা প্রয়োগের পরিকল্পনা প্রায় সম্পন্ন করে এনেছি। প্রথমে আমরা প্রতি মাসে ৫০ লাখ করে ৩ কোটি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা পাব ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট থেকে।
তিনি আরও বলেন, পরে বাকিটা আসবে কোভেক্স থেকে। এমনকি সিরাম থেকেও আরও আসতে পারে। এ ছাড়া প্রাইভেট সেক্টরকেও আমরা আহ্বান জানাচ্ছি। ফলে কিছুটা সময় লাগলেও টিকার কোনো সংকট হবে বলে মনে হয় না। ’

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

ডিসেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« নভেম্বর  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।