• ঢাকা
  • বুধবার, ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
রাজশাহী বিভাগের রাজশাহী মহানগরী ও জেলায় আক্রান্তের হার বিপদজনক পর্যায়ে

২৯ জুন ২০২০ রাজশাহী

গত ২ জুন রাজশাহী বিভাগের আট জেলায় মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিলো ৯৬২ জন। সেখানে গতকাল রবিবার ২৮ জুন সকাল পর্যন্ত সেই সংখ্যা গিয়ে দাঁড়ায় ৪৯৯০ জন। এই সময়ের মধ্যে মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়েছে আশঙ্কাজনক হারে। গত ২ জুন রাজশাহী বিভাগে করোনায় সরকারি হিসেবেই মৃত রোগীছিল মাত্র ৮ জন। সেখানে গতকাল সকাল পর্যন্ত গিয়ে ঠেকে ৭২ জনে। অর্থাৎ এই কয়দিনে করোনায় ৯ গুনেরও বেশি মৃত্যু বেড়েছে ৯ গুন। এছাড়াও প্রতিদিনই করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাচ্ছেন অনেকেই। গতকালও রাজশাহীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে মোট চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তার দরপত্র সূত্র মতে, এই বিভাগের এখন অন্যতম হটস্পটে পরিণত হয়েছে বগুড়া ও রাজশাহী ও পাবনা শহর। এই তিনটি শহর এক থেকে তিন নম্বরে অবস্থানে করছে করোনা আক্রান্তের দিক থেকে।

এর মধ্যে প্রায় দুই মাস করোনামুক্ত থাকা রাজশাহী সিটিতে এখন গড়ে অন্তত ৫০ জন করে রোগী শনাক্ত হচ্ছে প্রতিদিন। তবে আরো বেশি নমুনা পরীক্ষা গেলে এ সংখ্যা কয়েকগুন বাড়বে বলেই মনে করছেন সচেতন মহল।

এদিকে গত শনিবার সকাল থেকে গতকাল রবিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় রাজশাহী বিভাগে আরো ১৫৮ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। আর এই সময়ের মধ্যে মারা গেছেন আরও ২জন। বিভাগে শনাক্ত হওয়া মোট রোগীর সংখ্যা এখন ৪৯৯০জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৯৩৩জন।

রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. গোপেন্দ্রনাথ আচার্য্য এই তথ্য নিশ্চিত করেন গণমাধ্যমকে। তবে জেলার তথ্যের সঙ্গে বিভাগের তথ্যের মাঝে মধ্যেই গড়মিল লক্ষ্য করা গেছে। এর অন্যতম কারণ হিসেবে জানা গেছে, রাজশাহীর স্বাস্থ্য বিভাগের সম্নয়হীনতা। এমনকি নমুনা সংগ্রহের জন্য সিভিল সার্জন দপ্তরগুলোর প্রতি আহ্বান জানানো হলেও কোথাও কোথায় তাদের মাঝেও উদাসিনতা তৈরী হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। এর মধ্যে রাজশাহী জেলা সিভিল সার্জন এনামুল হকের বিরুদ্ধে করোনার এই দুর্যোগকালীন সময়েও সাধারণ মানুষের ফোন রিসিভ না করাসহ অসহযোগিতার অভিযোগ উঠেছে। একই অবস্থা বিভাগীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তা গোপেন আচার্যের ক্ষেত্রেও বিরাজ করছে।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তার দপ্তর সূত্র আরও জানান, বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে গতকাল পর্যন্ত চিকিৎসা নিচ্ছেন ৫৪৭ জন। মারা গেছেন ৭২জন।

রাজশাহী বিভাগের ৫টি ল্যাবে করোনার নমুনা শনাক্তের কাজ চলছে। এর মধ্যে রাজশাহীতে দুইটি, বগুড়া জেলায় দুইটি ও সিরাজগঞ্জে একটি ল্যাবে করোনা শনাক্ত হচ্ছে। তবে পাবনার ল্যাবটি চালুর অপেক্ষায় রয়েছে।

জানা গেছে, বিভাগের সর্বোচ্চ আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে বগুড়া জেলায়। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৭১৩ জন। পরের অবস্থানে রয়েছে রাজশাহী জেলা। সেখানে শনাক্তের সংখ্যা ৫১৩ জন। তৃতীয় অবস্থানে পাবনায় শনাক্ত হয়েছে ৪৩০ জন। এছাড়া সিরাজগঞ্জ জেলায় ৩৬৯, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৯৯ জন, নাটোরে ১৫৮ জন, নওগাঁয় ৩৮৪ জন এবং জয়পুরহাটে ৩২৪ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে।

তবে সমন্বয়হিনতার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তা গোপেন আচার্য। তিনি বলেন, স্বাস্থ্য বিভাগ সর্বোচ্চভাবে করোনা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। তবে এ ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষকে আরও বেশি সচেতন হতে হবে। এছাড়া করোনা প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়। এটি দিনের পর দিন ভয়াবহ হয়ে উঠছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

সেপ্টেম্বর ২০২১
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« আগষ্ট  
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০