• ঢাকা
  • সোমবার, ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
রাজ্য জুড়ে নজর রাখছেন ৬০ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী, ফেসবুকে হিসাব দিলেন মমতা

সংক্রমণ রুখতে রাজ্য জুড়ে কতটা পরিশ্রম করছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা, ফেসবুক পোস্টে তার হিসাব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এক মাসেরও কম সময়ে কত বার দরজায় দরজায় পৌঁছেছেন আশা ও স্বাস্থ্যকর্মীরা, কত জনের মধ্যে গুরুতর শ্বাসকষ্ট বা ফ্লু জাতীয় অসুস্থতা চিহ্নিত করেছেন, তাঁদের মধ্যে কত জনের কোভিড টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে, মঙ্গলবার নিজের ফেসবুক পেজে বিশদে সে সবের খতিয়ান মুখ্যমন্ত্রী তুলে ধরেছেন। রাজ্য জুড়ে এই নজরদারি চলবে বলেও তিনি লিখেছেন।

কোভিড-১৯-এর সংক্রমণের শিকার কারা, তা খুঁজে বার করার জন্য বাড়ি বাড়ি গিয়ে অসুস্থতা এবং তার উপসর্গের বিষয়ে খোঁজ নেওয়া চলছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ দিন ফেসবুক পোস্টে জানিয়েছেন যে, ৬০ হাজার আশা কর্মী ও স্বাস্থ্যকর্মীকে বিশেষ প্রশিক্ষণ দিয়ে এই কাজে লাগানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, ‘‘নজরদারি আমাদের আগে থেকে সতর্কতামূলক সঙ্কেত দেয় এবং কোভিড-১৯-এর সঙ্গে লড়তে তা এক সক্রিয় পদক্ষেপ।’’
মুখ্যমন্ত্রী এ দিন যে হিসাব দিয়েছেন, সেই অনুযায়ী ৭ এপ্রিল থেকে ৩ মে পর্যন্ত ৫ কোটি ৫৭ লক্ষেরও বেশি বাড়িতে পৌঁছেছেন আশা ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। তাতে মোট ৮৭২ জনের মধ্যে গুরুতর শ্বাসকষ্ট এবং ৯১ হাজার ৫১৫ জনের মধ্যে ফ্লু জাতীয় অসুস্থতা চিহ্নিত হয়। তাঁদের প্রত্যেককেই প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ দেওয়া হয় বলে মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন। তিনি আরও জানিয়েছেন যে, এ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে মোট ৩৭৫ জনকে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়, তাঁদের মধ্যে ৬২ জনের রিপোর্ট পজিটিভ আসে।
যত বেশি নজরদারি চালানো যাবে, সংক্রমণের বিষয়ে ততই সতর্ক থাকা যাবে, এ কথা বার বারই বলছেন বিশেষজ্ঞেরা। রাজ্য সেই কাজটা কতটা গুরুত্ব দিয়ে করছে, এ দিন তারই বিশদ হিসাব তুলে ধরার চেষ্টা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। বাংলায় করোনাকে পরাস্ত না করা পর্যন্ত এই নজরদারি চলবে বলে মুখ্যমন্ত্রী এ দিন লিখেছেন।
সংবাদ সুত্র ঃ আনন্দবাজার

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

এপ্রিল ২০২১
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« মার্চ  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০