• ঢাকা
  • বুধবার, ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
কিংবদন্তি নেত্রী সাজেদা চৌধুরীর ৮৫ তম জন্মদিন আজ

মনির মোল্যা,নিজস্ব প্রতিনিধি: 

আজ শুক্রবার ৮ মে বীর মুক্তিযোদ্ধা উপমহাদেশের বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আস্থাভাজন মাননীয় সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী এমপি’র ৮৫তম জন্মদিন।

তার জন্মদিন উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন, সংসদ উপনেতার রাজনৈতিক প্রতিনিধি, বিশিষ্ট কৃষি গবেষক শাহদাব আকবর লাবু চৌধুরী, সালথা উপজেলা চেয়ারম্যান ওয়াদুদ মাতুব্বর, সালথা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মাদ হাসিব সরকার, সহ সালথা-নগরকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী বৃন্দসহ সর্বস্তরের মানুষ। তার জন্মদিন নানা আয়োজনে পালন করবে নেতাকর্মীরা।

সালথা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ ওয়াদুদ মাতুব্বর বলেন, মাননীয় সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর জন্মদিনে আমি দোয়া করি আল্লাহ পাক তাকে যেন দীর্ঘ হায়াত দান করেন। তিনি জন্মে ছিলেন বলেই সালথা-নগরকান্দা আজ নগরে পরিনত হয়েছে। সাজেদা চৌধুরী একটি নাম নয় একটি প্রতিষ্টান। আমরা গর্ববোধ করি যে তার মতো নেত্রীর সাথে রাজনীতি করার সুযোগ পেয়েছি। তাকে নিয়ে কথা বলতে গেলে দিন শেষ হয়ে যাবে তবু বলা শেষ হবে না।

সালথা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মাদ হাসিব সরকার বলেন, আমি মাননীয় সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী এমপির এলাকায় কর্মরত থেকে কাজ করতে পেরে অনেক আনন্দিত। সাজেদা চৌধুরী কোন ব্যাক্তির নাম নয় তিনি একটি প্রতিষ্টান। কেও রাজনীতি করতে চাইলে শুধুমাত্র তাকে অনুস্মরণ করলেই হবে। রাজনীতির ইতিহাসে জীবন্ত কিংবদন্তি নেতার নাম সাজেদা চৌধুরী। তার জন্মদিনে অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন রইলো।

উল্লেখ্য, সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী বাংলাদেশের বিশিষ্ট প্রমিলা রাজনীতিবিদ। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও জাতীয় সংসদের উপনেতা। এর আগে তিনি পরিবেশ ও বনমন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৫৬ সাল থেকে সাজেদা চৌধুরী আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। ১৯৬৯–১৯৭৫ সময়কালে তিনি বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে কলকাতা গোবরা নার্সিং ক্যাম্পের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ছিলেন তিনি। ১৯৭১ সালে তিনি মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন।

১৯৭২-১৯৭৫ সময়কালে বাংলাদেশ নারী পুনর্বাসন বোর্ডের পরিচালক, ১৯৭২-১৯৭৬ সময়কালে বাংলাদেশ গার্ল গাইডের ন্যাশনাল কমিশনার এবং ১৯৭৬ সালে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ডের পর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৮৬ থেকে ১৯৯২ সাল পর্যন্ত তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, ১৯৯২ সাল থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক প্রদত্ত পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তিচুক্তি বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়কের দায়িত্বও তিনি পালন করছেন।

১৯৩৫ সালের ৮ মে মাগুরা জেলায় মামার বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী। তার পিতার নাম সৈয়দ শাহ হামিদ উল্লাহ এবং মাতা সৈয়দা আছিয়া খাতুন।

শিক্ষাজীবনে তিনি স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। তার স্বামী রাজনীতিবিদ এবং সমাজকর্মী গোলাম আকবর চৌধুরী। ২০১৫ সালের ২৩ নভেম্বর তার স্বামী মৃত্যুবরণ করেন।

৭ মে ২০২০

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

ফেব্রুয়ারি ২০২৩
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« জানুয়ারি  
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।