• ঢাকা
  • রবিবার, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ ইং
করোনা আতঙ্কে ধান কাটা নিয়ে দুশ্চিন্তায় মাধবপুরের কৃষকরা

পিন্টু অধিকারী  মাধবপুর ( হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলা জুড়ে ক্ষেতে ধান পেকে আসতেছে সোনালী ধান। ফসল ঘরে তোলার অপেক্ষার দিন গুনছেন  তেলিয়াপাড়া ও শাহজাহানপুর কৃষাণ-কৃষাণী ।  করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে বোরো ধান ঘরে তোলা নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছে কৃষক পরিবার। ধান কাটার শ্রমিকের অভাব ও পর্যাপ্ত মেশিন না থাকায় যথাসময়ে বোরো ধান কেটে গোলায় উঠাতে পারবে কি না এ নিয়ে চরম অনিশ্চিয়তায় ভুগছে তারা। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ধান কাটতে না পারলে অকাল বন্যায় ফসল তলিয়ে যাবার ও আশঙ্কা করছেন কৃষকরা। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর ও ভারত আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাবাস অনুযায়ী আগামী ১৭ এপ্রিল থেকে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত টানা ৪ দিন হবিগঞ্জে প্রচুর বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এ সময় ভারতের ত্রিপুরা ও মেঘালয় রাজ্যেও প্রচুর বৃষ্টিপাত হবে। এতে হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, সিলেট, নেত্রকোনা ও কিশোরগঞ্জ জেলার হাওর অঞ্চলের প্রধান নদ-নদীর পানি আশঙ্কাজনকভাবে বৃদ্ধি পাবে। বুধবার ১৫ এপ্রিল মাধবপুর উপজেলা বিভিন্ন জায়গাতে তথ্য নিয়ে দেখা যায় ক্ষেতে ধান পাকা শুরু হয়েছে কিন্তু বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে কৃষক-শ্রমিকসহ সবাই ঘরবন্দি। ফসল ঘরে তুলতে শ্রমিক সংকট দেখা দেওয়ার আশঙ্কা করছেন কৃষকরা। কৃষকরা জানান, অন্যান্য বছরের তুলনায় এবছর বোরো ধানের ফলন ভালো হয়েছে। ৫শ টাকা দৈনিক শ্রমমূল্যেও মিলছে না ধান কাটার শ্রমিক। ফসল ভালো হওয়াতে কৃষকরা খুশি। সে খুশি যেন আর স্থায়ী হতে পারছে না।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

নভেম্বর ২০২০
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« অক্টোবর  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।