• ঢাকা
  • রবিবার, ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩রা জুলাই, ২০২২ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
সদরপুরে হাটকৃষ্ণপুর বাজারে জনদুর্ভোগ মালামাল আমদানী-রপ্তানী বন্ধের পথে

ছবি সংযুক্ত, সদরপুর(ফরিদপুর)ঃ সদরপুরের হাটকৃষ্ণপুর বাজারের একাংশ-

মোঃ নুরুল ইসলাম, সদরপুর(ফরিদপুর) প্রতিনিধিঃ
ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার প্রধান ব্যসসাকেন্দ্র হাটকৃষ্ণপুর বাজারে স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী (এলজিইডি)বিভাগের মাত্র ৩৪০মিটার আরসিসি সড়ক নির্মান কাজে বিলম্ব হওয়ায় ব্যবসায়ী, ক্রেতা-বিক্রেতারাসহ জনগণ চরম দুর্ভোগে পড়েছে। সিডিউল মোতাবেক গত ০৫-১১-২০২১ইং তারিখে
কাজ শেষ করার চুক্তি থকলেও কাজই শুরু হয়নি। বাজারের ব্যবসা-বানিজ্য স্থির হয়ে পড়েছে। সামান্য বৃষ্টিতে সড়কে জমে হাটু পানি। পরিবহন খরচ হচ্ছে প্রায় তিনগুণ। প্রায় সোয়া ১ কোটি টাকার উপরে রাজস্ব আয়ের বাজারটিতে মাসের পর মাস জনগণের পদে পদে দুর্ভোগ পোহাতে হলেও দেখার
কেউ নেই।
জানা গেছে, কৃষ্ণপুর জিসি তালমা আরএনএইচ রোর্ড সদরপুর অংশের ১হাজার ৮১০মিটার সড়ক নির্মাণে এলজিইডি বিভাগের প্রায় ৩ কোটি ১৩ লাখ ২০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। এর মধ্যে কৃষ্ণপুর বাজারে ৩৪০ মিটার আরসিসি সড়ক নির্মানের বরাদ্দ রয়েছে। এলজিইডি বিভাগ টেন্ডার গত
১০-০২-২০২১ইং তারিকে সিডিউল মোতাবেক এমএনআইএম এসএস ফরিদপুর ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে কাজ করার দায়িত্বভার বুঝিয়ে দেয়। সিডিউল মোতাবেক গত ১৭-০২-২০২১ইং তারিখ থেকে ০৫-১১-২০২১ইং তারিখের মধ্যে কাজ সমাপ্তি করার কথা। মাঝ পথে এসে ঠিকাদার বাজারের আরসিসি করণের গাইড ওয়াল ও কিছু ভাঙ্গাচোরা স্থানে খোয়া ফেলে রেখে
কাজ বন্ধ করে দেয়। যার ফলে সামান্য বৃষ্টি হলে বাজারে বাধে হাটুপানি।
গাইড ওয়াল করার জন্য বাজারের বিভিন্ন গুদাম ও গলিতে ব্যবসায়ীরা মালামাল পরিবহন করতে পারছেনা।
এ বিষয় সদরপুর উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মোমিনের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমরা ঠিকাদারকে কাজ করার জন্য বার বার তাগাদা দিচ্ছি, ঠিকাদার কাজ করছে না। কিছুটা স্থানে জায়গার সমস্যাও রয়েছে।
ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের মালিক মোঃ সিদ্দিকুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি জানান, বাজারের কালিখোলা এলাকায় ২০ফুট রাস্তা করার মত জায়গা নেই।
জায়গার সমস্যার সমাধান হলে কাজ শুরু করব। বিষয়টি সংশিল্ট বিভাগ জানানো হয়েছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

জুলাই ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« জুন  
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১ 
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।