• ঢাকা
  • শনিবার, ৫ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জুন, ২০২১ ইং
Mujib Borsho
Mujib Borsho
আনারসের অজানা ১০টি গুণ

ছবি সংগৃহিত

আনারস আমাদের সবার প্রিয় ফল। আনারস আপনি কেটে অথবা জুস বানিয়ে অথবা কোন রান্নায়, যেই ভাবেই খান না কেন, এটি সব সময়ই সুস্বাদু। জ্বরের চিকিৎসায় গ্রাম বাংলায় আনারসের ব্যবহার বহু আগে থেকে চলে আসছে। এই ফলটি যে খেতেই শুধু সুস্বাদু তা না এর অনেক উপকারিতাও রয়েছে যা আমরা অনেকেই জানিনা।

১। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করেঃ

আনারসে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি আছে। ভিটামিন সি মানুষের অসুস্থতা থেকে বাঁচিয়ে মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। এছাড়া আনারস অনেক এন্টি অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে শরীর থেকে ক্ষতিকর পদার্থ বের করে দিতে সাহায্য করে।

২। হাড়ের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারীঃ

আনারসে প্রচুর পরিমাণ ম্যাংগানিজ আছে যা হাড়ের গঠন, বৃদ্ধি ও পুনর্গঠনের জন্য খুবই দরকারি।

৩। চোখের দৃষ্টির উন্নতি করেঃ

ম্যাকুলার ডিজেনারেশন, চোখের দৃষ্টিজনিত একটি সাধারন রোগ। এই রোগ অনেক বয়স্ক মানুষের মধ্যে অতি মাত্রায় দেখা যায়। আনারসে থাকা বেটা ক্যারোটিন বয়স জনিত এই ধরনের চোখের সমস্যা সৃষ্টিতে বাঁধা দেয়। আনারস চোখের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে এবং বয়সজনিত চোখের রোগ থেকে আমাদের দূরে রাখতে সাহায্য করে।

৪। আঘাত বা কাঁটা ঘা ঠিক হতে সাহায্য করেঃ

কিছু বিশেষ রোগ এবং দুর্বল স্বাস্থ্য মানুষের শরীরের নিজে থেকে সুস্থ হওয়াকে  বাধাগ্রস্থ করে। এই সমস্যায় আনারস সাহায্য করতে পারে। আনারসে প্রচুর পরিমাণ ব্রোমেলিন আছে যা মানুষের নিজে থেকে সুস্থ হওয়ার ক্ষমতাকে বৃদ্ধি করে। এখন আনারসের নির্জাসের লোশনও বাজারে পাওয়া যাচ্ছে।

৫। হজমে সাহায্য করেঃ

Roxas M. এবং Mayo clinic এর মতে নিয়মিত আনারস খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়রিয়া সহ বিভিন্ন রকম হজম এবং পেটের সমস্যা থেকে নিস্তার পাওয়া যায়।

৬। ক্যান্সার প্রতিরোধ করেঃ

আনারসে প্রচুর পরিমাণ এন্টি অক্সিডেন্ট, ভিটামিন এ, বেটা ক্যারোটিন, ব্রোমেলিনেবং ম্যাংগানিজ আছে যার ফলে আনারস নিয়মিত খেলে মুখ, গলা এবং ব্রেস্ট ক্যান্সার থেকে মুক্ত থাকা যায়। ইউনিভার্সিটি অফ ন্যাপলসের করা একটি রিসার্চে দেখা গেছে আনারসের ব্রোমেলিন কোলোরেক্টাল ক্যান্সার প্রতিরোধ করে।

৭। কিডনির পাথর দূর করেঃ

নিয়মিত আনারস খেলে এটি ব্লাড ক্লট সৃষ্টিতে বাঁধা দেয় এবং এটির ভিতরে থাকা ব্রোমেলিন কিডনির পাথর দূর করতে সাহায্য করে।

৮। ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করেঃ

আনারসে প্রচুর পরিমাণ পটাশিয়াম আছে। পটাশিয়াম রক্তচাপ কমিয়ে শরীরের বিভিন্ন অংশে রক্ত চলাচলে সাহায্য করে।

৯। মুখের বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করেঃ

আনারসের ভিতরে থাকা এন্টি অক্সিডেন্ট মুখের ক্যান্সার হতে বাঁধা দেয়। এছাড়া আনারস দাত ও মাড়ির শক্ত ও শক্তিশালী করতে সাহায্য করে।

১০। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করেঃ

আনারসে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার আছে যা ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষদের জন্য খুবই উপকারী। টাইপ ১ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষের রক্তের গ্লুকোজের লেভেল কমিয়ে এবং টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষদের রক্তের সুগার, লিপিড এবং ইন্সুলিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে।

ফেসবুকে লাইক দিন

তারিখ অনুযায়ী খবর

জুন ২০২১
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« মে  
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০